করোনা দেখিয়ে দিল টাকা-পয়সার কোনো মূল্য নেইঃ প্রধানমন্ত্রী

7
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ বৃহস্পতিবার দলটির সম্পাদকমণ্ডলির বৈঠকে বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্স যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারিকালে দুর্নীতি-অনিয়ম করে আয় করা অর্থ জীবন বাঁচাতে কাজে আসেনি।

শেখ হাসিনা বলেন, “একটা সময় দেখে যেত, (মানুষ) একটু থেকে একটু হলেই চিকিৎসার জন্য বিদেশ চলে যেত। কিন্তু করোনা বুঝিয়ে দিয়ে গেল টাকা-পয়সার কোনো মূল্য নেই। আর মনে হয় করোনাভাইরাস এসেছে মানুষকে ‘শিক্ষা’ দিতে।”

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ বৃহস্পতিবার দলটির সম্পাদকমণ্ডলির বৈঠকে বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্স যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ভিডিও কনফারেন্সে সম্পাদকমণ্ডলির বৈঠকে যোগ দিলেন শেখ হাসিনা।

দলীয় নেতাকর্মীদের প্রাপ্তির জন্য রাজনীতি না করে জনগণের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘করোনা দেখিয়ে দিল টাকা-পয়সা—কোনো কিছুর মূল্য নেই।’

শেখ হাসিনা আরো বলেন, ‘বিশ্বের অনেক উন্নত দেশ যেখানে করোনা সামলাতে হিমশিম খেয়েছে, সেখানে আমরা আমাদের অর্থনৈতিক কার্যক্রম একদিনের জন্যও থামতে দেইনি। অনেক উন্নত দেশের প্রবৃদ্ধি যেখানে মাইনাস গ্রেডে, সেখানে আমরা প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা হয়তো ধরে রাখতে পারিনি, কিন্তু পাঁচের ওপরে আমাদের প্রবৃদ্ধি থাকবে বলে ধারণা পাওয়া যাচ্ছে।’

করোনায় অর্থনীতির গতি ধরে রাখতে সরকারের নানা উদ্যোগের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘করোনাভাইরাস এসে সারা দুনিয়া স্থবির করে দিয়েছে, (কিন্তু) আমাদের দল, আমাদের সরকার কিন্তু থেমে থাকেনি। জনগণের জন্য কাজ করে চলছি। অর্থনৈতিক কার্যক্রম সচলে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে প্রণোদনা দিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমার করোনা মহামারিতে মৃত্যুর হার কম রাখতে সক্ষম হয়েছি। কারণ ঘাবড়ে না গিয়ে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছি। করোনা সংক্রমণ শুরুর পরই দুই হাজার ডাক্তার নিয়োগ করেছি, নার্স নিয়োগ দিয়েছি।’