আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার চেষ্টা; ৩ জন বন্দী

3
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
আর্মেনিয়ার ন্যাশনাল সিকিউরিটি সার্ভিস বা এনএসএস জানিয়েছে, তারা দেশের প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশনিয়ানকে হত্যার একটি পরিকল্পনা প্রতিহত করেছে। আজারবাইজানের সঙ্গে সম্প্রতি যুদ্ধবিরতি চুক্তি করার পর পাশনিয়ানের কাছ থেকে ক্ষমতা দখলের লক্ষ্য নিয়ে এই হত্যা প্রচেষ্টা চালানো হয় এবং এর সঙ্গে সাবেক কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা জড়িত ছিলেন।

এনএসএস জানিয়েছে, এই সংস্থার সাবেক প্রধান আর্তুর ভানেসতিয়ান, রিপাবলিকান পার্টির সাবেক সংসদীয় দলের প্রধান বাহরাম বাগদাসারিয়ান এবং এবং সাবেক সেনা কর্মকর্তা আশোত মিনাসিয়ানকে বন্দী করা হয়েছে।

এনএসএস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সন্দেভাজন এসব ব্যক্তি প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা করে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের পরিকল্পনা করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার পর ক্ষমতা দখল করে কাকে নতুন প্রধানমন্ত্রীর করা হবে তাও তারা আলোচনা করেন।

নাগার্নো-কারাবাখ নিয়ে আজারবাইজানের সঙ্গে আর্মেনিয়ার গত ছয় সপ্তাহের প্রচণ্ড লড়াইয়ের পর বাকুর সঙ্গে পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধবিরতি করার কারণে আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী পাশনিয়ান মারাত্মক চাপের মধ্যে রয়েছেন। যুদ্ধবিরতি চুক্তির পর তার বিরুদ্ধে হাজার হাজার মানুষ রাজধানী ইয়েরেভানসহ বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ করেছে।

কারাবাখের বিভিন্ন গ্রামে বসবাসরত জাতিগত আর্মেনীয়রা ওই এলাকা ছেড়ে চলে যাওয়ার আগে তাদের ঘরবাড়িতে আগুন দেয়। যুদ্ধবিরতি চুক্তির আওয়ায় এসমস্ত এলাকা আজারবাইজানের কাছে হস্তান্তর করার কথা।

যুদ্ধবিরতি চুক্তির পর চাপের মুখে পড়লেও নিকোল পাশনিয়ান বলেছেন, পরিপূর্ণভাবে বিপর্যয়ের মুখে পড়ার অবস্থা থেকে বাঁচতেই তিনি আজারবাইজানের সঙ্গে পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধবিরতি চুক্তি করতে বাধ্য হয়েছেন; এছাড়া তার সামনে বিকল্প কোনো পথ ছিল না।