রাজধানীতে বাসে আগুনের ঘটনায় বিভিন্ন মামলায় ২৮ জন রিমান্ডে

2
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
রাজধানীতে বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় বিভিন্ন থানায় দায়ের করা মামলায় ২৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। আজ শুক্রবার ঢাকার পৃথক দুই মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এই আদেশ দেন।

এর মধ্যে রাজধানীর শাহবাগ থানার পৃথক দুই মামলায় ছয়জন, পল্টন থানার এক মামলায় নয়জন, মতিঝিল থানার মামলায় দুজন, বংশাল থানার মামলায় দুজন, কলাবাগান থানার মামলায় দুজন, সূত্রাপুর থানার মামলায় চারজন, খিলক্ষেত থানার মামলায় দুজন ও তুরাগ থানার মামলায় একজনসহ মোট ২৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড দেওয়া হয়েছে।

শাহবাগ থানা: এই থানায় দায়ের করা পৃথক দুই মামলায় ছয় আসামির তিন দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। আজ ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডল এ আদেশ দেন। রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন- হযরত আলী, মঈনউদ্দিন, আবু সাঈদ শান্ত, আবুল কালাম আজাদ, আবু সুফিয়ান ও সোহেল। এদের মধ্যে প্রথম তিনজন এক মামলায় এবং পরের তিনজন আরেক মামলার আসামি।

পল্টন থানা: এই থানায় করা একটি মামলায় নয়জনের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী। এর মধ্যে আলিজা আল আহমেদ মিটু ও মেহেদী হাসান ইয়াছিনের তিন দিন করে এবং এ কে ফজলুর বারী, আলতাফ হোসেন, নাঈম প্রধান, আলিফ মাহমুদ, হুমায়ুন রশীদ টুটুল, খন্দকার মাশুকুর রহমান ও রাশেদুজ্জামানের পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। তাঁদের বিরুদ্ধে আদালতে সাত দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন পল্টন থানা পুলিশ।

মতিঝিল থানা: এখানে দায়ের করা একটি মামলায় ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী দুই আসামির বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। এর মধ্যে আবদুর রহমান তাহেরের দুই দিন ও আরেক মামলায় জাকির হোসেনের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তাঁদের বিরুদ্ধে আদালতে পাঁচ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়।

বংশাল থানা: এই থানায় দায়ের করা একটি মামলায় দুই আসামির দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডল দেন। রিমান্ডে নেওয়া আসামিরা হলেন সফিউদ্দিন আহমেদ সেন্টু ও মৃদু রহমান জনি ওরফে মোরশেদুর রহমান জনি। তাঁদের বিরুদ্ধে আদালতে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়।

কলাবাগান থানা: এই থানায় দায়ের করা মামলায় দুই আসামির দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডল। রিমান্ড মঞ্জুর করা আসামিরা হলেন মাহিফুর রহমান টিপু ও মাঈনউদ্দিন চৌধুরী। তাঁদের বিরুদ্ধে সাত দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ।

সূত্রাপুর থানা: এখানে দায়ের করা মামলায় চার আসামির তিন দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী। রিমান্ড মঞ্জুর করা আসামিরা হলেন সাব্বির ভূঁইয়া, হাজি মো. আহসান উল্লাহ, আহম্মেদ মাসুদ কাজল ও নবগোপাল দত্ত। তাঁদের বিরুদ্ধে সাত দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়।

খিলক্ষেত থানা: এই থানায় করা মামলায় দুই আসামির দুই দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডল। আসামিরা হলেন মশিউর রহমান মসি ও ইঞ্জিনিয়ার নজরুল ইসলাম। তাঁদের প্রত্যেককে সাত দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ।

তুরাগ থানা: এখানে দায়ের করা একটি মামলায় সোহেল মিয়া নামের এক আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডল। তাঁর বিরুদ্ধে সাত দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়।

৯ মামলা:
রাজধানীতে গতকাল বৃহস্পতিবার বাসে অগ্নিসংযোগ ও নাশকতার ঘটনায় পল্টন, মতিঝিল, শাহবাগ, ভাটারা, বংশাল ও উত্তরা পূর্ব থানায় মোট নয়টি মামলা হয়েছে। পুলিশ বাদী হয়ে এসব মামলা করেছে। এসব মামলায় ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গণমাধ্যম ও গণসংযোগ শাখার উপকমিশনার (ডিসি) ওয়ালিদ হোসেন আজ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওয়ালিদ হোসেন বলেন, ‘পল্টন, মতিঝিল, শাহবাগ, ভাটারা, বংশাল ও উত্তরা পূর্ব থানায় মোট নয়টি মামলা হয়েছে। বিস্ফোরক ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে এসব মামলা হয়েছে। এসব মামলায় মোট ২০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্নস্থানে ১০টি বাসে অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তরা। তবে এসব ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।

ভাটারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তারুজ্জামান আজ দুপুর ১২টার দিকে বলেন, ‘বাস পোড়ানোর ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ৯০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত অনেককে আসামি করা হয়েছে।’

বংশাল থানার ওসি শাহীন ফকির বলেন, ‘বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে দুজনকে।’

অপরদিকে আজ সকালে শাহবাগ থানার ওসি মামুন অর রশিদ বলেন, ‘এখানে দুটি মামলায় ছয়জনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।’

ডিএমপির উত্তরা বিভাগের ডিসি মো. শহিদুল্লাহ বলেন, উত্তরায় গাড়ি পোড়ানোর ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

ভোটকেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণের মামলা:
গতকাল ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ ছিল। ভোটগ্রহণের মধ্যেই বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টার মধ্যে উত্তরার ৮ নম্বর ও ১২ নম্বর সেক্টরের দুটি কেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

উত্তরা বিভাগের ডিসি মো. শহিদুল্লাহ আজ দুপুরে বলেন, ‘ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় মোট নয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিস্ফোরক আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

কলাবাগানে আরেকটি মামলা:
এছাড়া গতকাল রাতে রাজধানীর পান্থপথের বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্স এলাকার মশাল মিছিল থেকে ছাত্রদলের দুই নেতাকর্মীকে আটক করে কলাবাগান থানা পুলিশ।

যেসব স্থানে বাসে আগুন দেওয়া হয়:
পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের উত্তর পাশে কর অঞ্চল-১৫-এ পার্কিং করা সরকারি গাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

এরপর গতকাল দুপুর ১টার দিকে মতিঝিলের মধুমিতা সিনেমা হলের সামনে অগ্রণী ব্যাংকের স্টাফ বাসে এবং ১টা ২৫ মিনিটে রমনা হোটেলের সামনে ভিক্টর ক্লাসিক পরিবহনের চলন্ত গাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এরপর দুপুর দেড়টার দিকে শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের সামনে দেওয়ান পরিবহনে, দুপুর ২টা ১০ মিনিটে সচিবালয়ের উত্তর পাশে রজনীগন্ধা পরিবহন এবং বংশাল থানাধীন নয়াবাজার এলাকায় ২টা ২৫ মিনিটে দিশারী পরিবহনের একটি বাসে আগুন দেওয়া হয়।

এছাড়া ২টা ৪৫ মিনিটে পল্টন থানাধীন পার্কলিং-এ জৈনপুরী পরিবহন, বিকেল ৩টায় মতিঝিল থানাধীন পুবালী পেট্রোল পাম্পের পাশে বিআরটিসির দোতলা বাসে, সাড়ে ৪টার দিকে ভাটারা থানাধীন কোকাকোলা মোড়ে ভিক্টর ক্লাসিক পরিবহনের একটি বাসে এবং উত্তরার আজমপুরের বিএনএস সেন্টারের বিপরীত দিকে বিকেল ৫টা ৫৫ মিনিটে পরিস্থান পরিবহনের একটি বাসে অগ্নিসংযোগ করা হয়।