প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে বরখাস্ত করলেন ট্রাম্প

7
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
নির্বাচনে হারের কয়েক দিনের মাথায় প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপারকে বরখাস্ত করেছেন বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার প্রশাসনের শীর্ষ এ মন্ত্রীকে পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার ঘোষণা দিয়ে একটি টুইট করেছেন তিনি। মঙ্গলবার এক অনলাইন প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

ট্রাম্পের সঙ্গে মার্ক এসপারের প্রকাশ্য বিবাদের পর এমন ঘোষণা আসলো। এর আগে আরও কয়েকজন প্রতিরক্ষামন্ত্রী কাজ করেছে ট্রাম্প প্রশাসনে। বেশিরভাগের সঙ্গে মত না মেলায় তাদের বরখাস্ত করেন তিনি।

নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে ক্রিস্টোফার মিলারকে নিয়োগ দিয়েছেন ট্রাম্প। মিলার যুক্তরাষ্ট্রের কাউন্টার টেররিজম সেন্টারের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের হেরে গেছেন। আগামী ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবেন ট্রাম্প। এর মধ্যে আরও একজন প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে বরখাস্ত করলেন তিনি।

তবে এখনও নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের কাছে পরাজয় স্বীকার করে নেননি ট্রাম্প। তিনি নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন। বেশ কিছু অঙ্গরাজ্যে মামলাও করেছেন। আইনি লড়াই যে তিনি চালিয়ে যাবেন এবং সহজেই ক্ষমতা ছাড়বেন না এমন আশঙ্কার কথা জানিয়ে রেখেছেন বিশ্লেষকরা।

নির্বাচনে হেরে গেলেও আগামী ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত যে কাউকে বরখাস্ত করার ক্ষমতা রাখেন ট্রাম্প। বিবিসি জানিয়েছে, সোমবার যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট বার্তায় এসপারকে বরখাস্তের ঘোষণা দেয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই মার্কিন প্রতিরক্ষা সদর দফতর পেন্টাগনে ঢুকতে দেখা যায় নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মিলারকে।

যুক্তরাষ্ট্রের স্পেশাল ফোর্সের সাবেক এ কর্মকর্তা এর আগে ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদে কাজ করেন। এর পর তাকে কাউন্টার টেররিজম সেন্টারের প্রধান করা হয়। ট্রাম্প প্রশাসনের শেষদিকে এসে অল্প কিছুদিনের জন্য পেলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব। তবে তিনিও যে শেষ পর্যন্ত থাকবেন তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।