কলকাতা মোহামেডানেই হচ্ছে জামাল ভুঁইয়ার ঠিকানা

3
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস নিউজ ডেস্কঃ
অবশেষে কলকাতা মোহামেডানেই নাম লেখাচ্ছেন বাংলাদেশ ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন ভারতীয় ক্লাবটির কর্মকর্তারা। কলকাতা মোহামেডানের ফুটবল সচিব ওয়াসিম আকরাম বলেন, ‘চুক্তি নিশ্চিত হয়ে গেছে। প্রথমে এমন ছিল ওকে যেন আমরা লোনে নিতে পারি। তবে বিষয়টা মীমাংসা হয়ে গেছে। কয়েকদিনের মধ্যেই কাগজপত্রে বিষয়টা চূড়ান্ত করবো।’

৭ই জানুয়ারি শুরু হওয়ার কথা ভারতীয় ঘরোয়া ফুটবল আসর আই লীগের ২০২১-২২ মৌসুম। সাত বছর পর আই লীগে খেলছে কলকাতা মোহামেডান। এই মৌসুমে ভালো করলে পরের মৌসুমে ইন্ডিয়ান সুপার লীগে (আইএসএল) অংশ নেয়ার সুযোগ পেতে পারে তারা।

তাই শক্তি বাড়ানোর লক্ষ্যে বাংলাদেশের সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব থেকে জামালকে দলে টেনেছে কলকাতা মোহামেডান। শেখ রাসেল থেকে গত দুই মৌসুমের সর্বোচ্চ গোলদাতা রাফায়েলকে দলে ভিড়িয়েছে ওপার বাংলার ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি।

আগামী বছর জানুয়ারিতে শুরু হয়ে আই লীগ আসর চলতে পারে মার্চ পর্যন্ত। জামালকে মোহামেডান চায় আই লীগের শেষ ম্যাচ পর্যন্ত।
আকরাম বলেন, ‘আই লীগের শেষ ম্যাচ পর্যন্ত জামালের সঙ্গে চুক্তি হবে। এর পরে কোনো সমস্যা নাই।’  শর্ত সাপেক্ষে আন্তর্জাতিক দলবদলের ছাড়পত্র পাচ্ছেন জামাল ভূঁইয়া। সাইফের হয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের দ্বিতীয় লেগে খেলতে হবে তাকে। তাহলে মিলবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন থেকে দলবদলের ছাড়পত্র।

সাইফ স্পোর্টিংয়ের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান বলেন, ‘জামাল কলকাতা মোহামেডানে যেতে চান, সেটা আমাদের জানিয়েছেন। তবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের দ্বিতীয় পর্ব শুরু হওয়ার কথা ২০২১ সালের ৩০ এপ্রিল। আমরা জামালকে বলেছি, লীগের দ্বিতীয় পর্বে সাইফে এসে যোগ দিতে। মোহামেডানের সঙ্গে চুক্তিতে সেভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে আলোচনা।’

২০১৪ থেকে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে খেলছেন ডেনমার্কে জন্ম নেয়া জামাল ভূঁইয়া। করোনায় বাতিল হয়ে যাওয়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগসহ গত তিন মৌসুমে সাইফ স্পোর্টিংয়ে খেলেন তিনি। জামাল-সাইফের চুক্তিটা মাসিক ভিত্তিতে। গত মৌসুমে সাইফের সঙ্গে মাসে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা চুক্তি ছিল জামালের। ২০১৯ মৌসুম শেষ হয় ১৪ মাসে। সে জন্য এই হোল্ডিং মিডফিল্ডারের পেছনে সাইফকে খরচ করতে হয়েছে ৭৭ লাখ টাকা।