রহস্যময় ফোনকল মার্কিন ভোটারের কাছে, তদন্তে এফবিআই

4
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
কে হচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট? ট্রাম্পকে সরিয়ে বাইডেন হোয়াইট হাউজের বাসিন্দা হচ্ছেন কী? নাকি ট্রাম্পই রয়ে যাচ্ছেন?

এমন সব প্রশ্নের জবাব পেতে ফলাফলের অপেক্ষা ছাড়া আর কিছুই করার নেই। তবে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনকে ঘিরে যে রহস্যের এখনও উন্মোচন হয়নি তাহলো- রোবোকল রহস্য। রোবোকল মানে যে কল ধরলে ওপাশ থেকে রোবটের কণ্ঠ শোনা গেছে। গত কয়েকদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যের ভোটারদের মোবাইল ফোনে এমন রহস্যময় কল গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পত্রিকা ওয়াশিংটন পোস্ট লিখেছে, গত কয়েক সপ্তাহে আমেরিকান ভোটারদের কাছে আনুমানিক ১ কোটি ফোন কল গেছে, যা করা হয়েছে যন্ত্রের মাধ্যমে। রেকর্ড করা ওই অডিও বার্তায় কম্পিউটারে তৈরি করা যান্ত্রিক নারী কণ্ঠে সবাইকে বাড়িতে থাকতে উৎসাহ দেয়া হয়েছে। তবে নির্বাচনে ভোট দেয়া নিয়ে সেখানে স্পষ্টভাবে কিছু বলা হয়নি। ভুয়া অথবা অপরিচিত নম্বর থেকে এসব কল গেছে।

গত কিছুদিনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় সব এলাকায় এ ধরনের কল আসার তথ্য মিলেছে বলে জানিয়েছে ওয়াশিংটন পোস্ট। এই কলগুলোর পেছনে কোন চক্র যুক্ত সে রহস্য এখনও বের করা সম্ভব হয়নি। তবে এতে কোনো বিদেশি শক্তির হাত রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা শুরু করেছে এফবিআই।

যদিও এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিদেশি শক্তির হস্তক্ষেপের কোনো প্রমাণ এখনও মেলেনি বলে ইতোমধ্যে দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত প্রধান চ্যাড উলফ।

মঙ্গলবার এক ভারচুয়াল সংবাদ সম্মেলনে উলফ বলেছেন, ভোটে কোনো বিদেশি শক্তি সমস্যা সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে, এমন কোনো প্রমাণ আমরা পাইনি। তবে রহস্যময় সেসব ফোনকলকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছে এফবিআই।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গণমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, এক সিআইএসএ কর্মকর্তা বলেছেন, হ্যাঁ, কিছু রোবোকল গেছে বলে সত্যতা পেয়েছি আমরা। এটা নিয়ে ভাবনার কিছু নেই। প্রতি নির্বাচনেই রোবোকল হয়ে থাকে। আমরা এ বিষয়ে অবগত আছি। এসব কলের বিষয়ে এফবিআই তদন্ত করছে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের নির্বাচনে ‘বিদেশি শক্তির’ হস্তক্ষেপ নিয়ে বেশ সোরগোল হয়। সেই নির্বাচনে রাশিয়ার হ্যাকাররা ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জেতাতে এবং হিলারি ক্লিনটনকে হারাতে কাজ করেছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।