মোবাইল ব্যবহারে ঝুঁকি, জেনে নিন ৬ নির্দেশনা

১৪ই অক্টোবর, ২০২০ || ০১:০৪:৪৮
14
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:
আজকাল স্মার্টফোন ছাড়া জীবন চিন্তাও করা যায়না। ডিভাইসটি আমরা কেবল বিনোদনের জন্য ব্যবহার করি এমনটা নয়। ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ অনেক কাজও এখন মোবাইল ছাড়া অসম্ভব।

তারপরও মোবাইল ব্যবহার নিয়ে আছে নানা মত। কেউ বলছেন যন্ত্রটি তাদের জীবনকে সহজ করে তো কেউ বলছেন মোবাইল ফোন শরীরের জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু ডাক্তারদের ভয় অন্য জায়গায়। অনেক বিশেষজ্ঞই মনে করেন, মোবাইলের প্রতি অতিরিক্ত আসক্তি মানুষকে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলতে পারে এমনকি ইনজুরিও হতে পারে।

এ প্রসঙ্গে ভারতের অস্থি বিশেষজ্ঞ ড. রাগভেন্দ্র কেএস বলেন, আজকাল অনেকেই অতিরিক্ত মোবাইল ব্যবহারের কারণে আঙ্গুল, হাত ও কনুই ব্যথার সমস্যা নিয়ে আসেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় তা সেলফি তোলা হাতের কনুই বা মেসেজ লেখার আঙ্গুল। আর এমন রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

এ ধরণের ইনজুরি থেকে মুক্তি পেতে তিনি কিছু পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

১. মোবাইলে টাইপ ও স্ক্রল করতে সবসময় একই আঙ্গুল ব্যবহার না করা। দুই কাজের জন্য আলাদা দুটি আঙ্গুল ব্যবহার করা।

২. সম্ভব হলে মোবাইল নির্দিষ্ট জায়গায় রেখে টেক্সট লেখা। অন্যথায় মোবাইল এক হাতে রেখে অন্য হাতে টেক্সট লেখা। কখনই একই হাতে উভয় কাজ না করা।

৩. ঘাড়ের উপর চাপ কমিয়ে আনার জন্য এবং মেরুদণ্ডের অনুকূল পরিস্থিতি বজায় রাখতে ফোনটিকে বুক, চিবুক বা চোখের স্তরে রাখার চেষ্টা করা। যদি ফোনটি চোখের স্তরের নীচে থাকে তবে ঘাড় কম বাঁকা করে চোখ নীচে নামিয়ে দেখা।

৪. মোবাইল ধরার সময় যতটা সম্ভব কব্জি সোজা রাখা।

৫. একটানা ২০ মিনিটের বেশি মোবাইল ব্যবহার না করা। কিছুক্ষণ বিরতি নিয়ে আবার শুরু করা।

৬. ছবি তোলার সময় হাতকে নিজের পজিশনের সমান রাখা। কনুই খুব একটা না বাঁকানো। আর সম্ভব হলে সেলফিস্টিক ব্যবহার করা।