বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বাসায় হামলার ঘটনায় ১২ নেতাকর্মী বহিষ্কার

23
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাসায় হামলা ও বিক্ষোভের ঘটনায় ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির ১২ সদস্যকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে দলটি। সোমবার (১২ অক্টোবর) বিকেলে মহানগর উত্তর বিএনপির দপ্তর সম্পাদক এবিএম এ রাজ্জাক গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়াও তার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বহিষ্কারাদেশের কথা জানানো হলেও ঘটনার কারণ তারা উল্লেখ করেননি। যদিও সেখানে বলা হয়, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে গঠনতন্ত্রের ৫ এর ‘গ’ ধারায় এই ১২ জন সদস্যের প্রাথমিক সদস্যপদসহ সব পর্যায়ের পদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হলো। যে আদেশে স্বাক্ষর করেন বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও সিনিয়র সহ-সভাপতি।

বহিষ্কৃতরা হলেন- দক্ষিণখান থানা বিএনপির সহ-সভাপতি ফুল ইসলাম, দক্ষিণখান থানা বিএনপির সদস্য নাজিম উদ্দিন দেওয়ান, দক্ষিণখান থানা বিএনপির ৫০ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক আমানউল্লাহ, দক্ষিণখান থানা বিএনপির ৫০ নং ওয়ার্ডের সাংগঠনিক সম্পাদক মোখলেছ, দক্ষিণখান থানা বিএনপির সদস্য আমজাদ হোসেন, উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তাইজুল ইসলাম, উত্তরখান থানা বিএনপির সদস্য নূর মোহম্মদ, উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমএ হান্নান মিলন, উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক হাবিবুর রহমান, উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির প্রবাসীকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবদুল কাদের স্বপন এবং উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হারুনুর।

ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উত্তর বিএনপির দপ্তর সম্পাদক এবিএম এ রাজ্জাক।

তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, অপরাধ প্রমাণ হলে দল থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

গত শনিবার ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে কাঙ্ক্ষিত প্রার্থীকে মনোনয়ন না দেয়ায়, মনোনয়নপ্রত্যাশী কফিল উদ্দিনের সমর্থকরা মির্জা ফখরুলের বাসার সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এ সময় তার বাসায় হামলা চালায় বিক্ষোভকারীরা। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও স্থায়ী কমিটির সদস্যসহ দলের নেতাকর্মীরা ক্ষোভ জানায়। এরই দুদিন পর এমন সিদ্ধান্ত নিল দলটি।

বিএনপি ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে ৯ জন মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মাঝ থেকে এসএম জাহাঙ্গীরকে বেছে নেয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলের একজন সিনিয়র নেতা জানান, জাহাঙ্গীরকে মনোনয়ন দেয়ায় মনোনয়নপ্রত্যাশী উত্তর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কফিলউদ্দিন আহমেদ এ ঘটনা ঘটিয়েছে।