একদিনের প্রধানমন্ত্রী!

19
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
বলিউডের ‘নায়ক’ সিনেমাটি যারা দেখেছেন তারা জানেন, সাধারণ নাগরিক থেকে একদিনের জন্য ভারতের এক রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী বনে যান অনিল কাপুর। তখন অনেক দর্শকই নাক উঁচু করে বলেছিলেন, এগুলো সিনেমাতেই সম্ভব, বাস্তবে না। বেশি বেশি সব।

কিন্তু সিনেমার থেকে বাস্তবে যে বেশি কিছু হয়, বা বাস্তবতার ঘটনাই সিনেমার পর্দায় নিয়ে আসা হয় , সেটি আবারো প্রমাণ হলো ফিনল্যান্ডে। বিশ্বাস করুন আর নাই করুন, দেশটিতে ১৬ বছরের এক কিশোরীকে দেওয়া হয়েছে একদিনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব। ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন ৮ অক্টোবর (বুধবার) নিজের হাতে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব তুলে দেন দক্ষিণ ফিনল্যান্ডের ভাস্কাইয়ের বাসিন্দা আভা মুরতোর হাতে। তাই আপাতত, প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন, বুধবার সারাবদিন সাবেক প্রধানমন্ত্রী হয়ে পাশে থাকবেনেএকদিনের প্রধানমন্ত্রী আভা মুরতোর সঙ্গে।

নারী অধিকার রক্ষার প্রচার অভিযান সকলের সামনে তুলে ধরতেই এই অভিনব, চমকপ্রদ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল ফিনল্যান্ডে। একদিনের জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে উচ্ছ্বসিত ১৬ বছরের আভা মুরতো। আভা পরিবেশ ও মানবাধিকার নিয়ে কাজ করে। একদিনের প্রধানমন্ত্রী হয়ে দেশের আইনব্যবস্থা বিষয়ে নতুন জিনিস শিখেছে বলে সে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমকে।

নিজের উচ্ছ্বাস গোপন না করে একদিনের প্রধানমন্ত্রী আভা বলেছে, সিদ্ধান্ত নেওয়া মেয়েদের নিজেদের বুঝতে হবে। মেয়েরাও যে ছেলেদের সঙ্গে প্রযুক্তির ব্যাপারে পাল্লা দিতে পারে সেটি জানাতে হবে। আভা মনে করেন, ছোটদের কাছেও বড়দের অনেক কিছু শেখার আছে।

ফিনল্যান্ডের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর বয়সও অবশ্য খুব বেশি না। ৩৪ বছর বয়সি সানা মারিন বিশ্বের কনিষ্ঠতম রাষ্ট্রপ্রধান। গত ডিসেম্বরে তাদের জোট সরকার ফিনল্যান্ডের ক্ষমতায় এসেছে।