বেগমগঞ্জে ঘটে যাওয়া নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে আজ ও স্বোচ্চার নোয়াখালী

৬ই অক্টোবর, ২০২০ || ০২:১২:৩০
56
Print Friendly, PDF & Email

নোয়াখালী করোসপন্ডেন্ট, নিউজবিটোয়েন্টিফোরঃ নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে ঘটে যাওয়া নেক্কারজনক নারী নির্যাতনের ঘটনার প্রতিবাদে আজো দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদ কর্মসূচী চলমান। নোয়াখালীতে বিভিন্ন সংগঠনের উদ্দ্যেগ্যে চলছে প্রতিবাদ কর্মসূচী ও মানববন্ধন।

গাবুয়া ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যোগে চলমান মানববন্ধন

গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টা ও বিবস্ত্র করে অমানুষিক নির্যাতনের ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার পর পুরো দেশ বিক্ষোভে ফুঁসে উঠে। দল মত নির্বিশেষে সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে প্রতিবাদ করে নির্যাতন কারীদের দৃষ্টান্তকারী শাস্তির দাবি করেছেন। গতকাল ঘটনাস্থল নোয়াখালী সহ সারা দেশেই চলে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচী।

এরই ধারাবাহিকতায় আজ সকাল নয়টায় নোয়াখালীর গাবুয়া উপশহরে ‘গাবুয়া ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের’ উদ্যোগে আয়োজন করা হয় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচী। এতে যোগ দেন দল মত নির্বিশেষে এলাকাবাসি, ছাত্র সহ বিভিন্ন কর্মজীবি সাধারন মানুষ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন গাবুয়া ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের সভাপতি সোহরাব উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট দেলোয়ার হোসেন বাবলু, সাংগঠনিক সম্পাদক হাসান আকবর, স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা মোহাম্মদ মনির উদ্দিন, সমাজসেবক দ্বীন মোহাম্মদ ভুইয়া, স্থানীয় মেম্বার নুর নবী মানিক সহ এলাকার মান্যগণ্য ব্যাক্তিবর্গ।

সাংগঠনিক সম্পাদক হাসান আকবর ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি তে দুইটা ভাগ, মানুষ এবং ধর্ষক, এরা মানুষের পর্যায়ে পড়েনা। এতটা নৃশংস ভাবে নির্যাতন আমরা কোনভাবেই মেনে নিতে পারিনা। আমরা এ ধরনের অপরাধের পিলে চমকে যাওয়া শাস্তি দাবী করছি, এবং শাস্তি কার্যকর যেন হয় দ্রুত সে প্রত্যাশা করছি”

সংগঠনটির সভাপতি জনাব সোহরাব উদ্দিন দুঃখপ্রকাশ করে বলেন, “আমরা এতটাই নির্জিব হয়ে গেছি যে আমাদের পাশের ঘরে, পাশের বাড়িতে এভাবে নির্যাতন চলছিলো কিন্তু আমরা কেউই এগিয়ে আসিনি, বাঁধা দেইনি। নির্যাতনকারীরা ছিলো গুটিকয়েক অথচ বাড়িতে এলাকায় আশেপাশে কত মানুষ, অথচ কেউ ই আগাইনি। আমরা চাই আমাদের মধ্যকার বিবেক জাগ্রত হোক, একে অন্যের পাশে দাড়ানোর মানুষিকতা জাগ্রত হোক, যাতে করে মূলেই বন্ধ করে দেয়া যায় এসব অন্যায় অত্যাচার”

উল্লেখ্য, গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওই নারীর আগের স্বামী তার সঙ্গে দেখা করতে তার ঘরে ঢোকেন। বিষয়টি দেখে ফেলে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী ও দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার। রাত ১০টার দিকে দেলোয়ার তার লোকজন নিয়ে ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে পরপুরুষের সঙ্গে অনৈতিক কাজ ও তাদের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর শুরু করেন। একপর্যায়ে পিটিয়ে নারীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ করে। ৪ অক্টোবর দুপুরে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়।