চারদিন বিরতির পর আজ আবার অনুশীলনে টিম টাইগার

১ই অক্টোবর, ২০২০ || ০৩:৩৯:১৭
9
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস ডেস্ক:
চার দিনের বিরতি পড়েছিল জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের স্কিল ক্যাম্পে। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত হয়ে গেছে। ছুটি পেয়ে অনেক ক্রিকেটারই হোটেল ছেড়ে বাসায় গিয়েছিলেন। জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙেছিল। 

অবশ্য ছুটির সময়টাতেও অনেক ক্রিকেটার ব্যক্তিগতভাবে অনুশীলনে ছিলেন। গতকালও মিরপুর স্টেডিয়ামে মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোহাম্মদ মিঠুনরা অনুশীলন করেছেন। এদিন শেরেবাংলায় ঢুঁ মেরেছেন রুবেল হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, সাদমান ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, নাঈম হাসান, এবাদত হোসেনরাও। মূলত করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়েছেন সবাই।

আজ থেকে জাতীয় দলের স্কিল ক্যাম্পের দ্বিতীয় পর্ব শুরু হবে। আজ আবারও হোটেল সোনারগাঁয়ে জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করবেন ক্রিকেটাররা। তার আগে গতকাল করোনার নমুনা দিয়েছেন মুমিনুল-মুশফিকরা। গতকাল অবশ্য ক্রিকেটাররাসহ প্রায় ১০০ জনের নমুনা নেওয়া হয়েছে। জাতীয় দল ও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফের সদস্যদের নমুনা নেওয়া হয়। আজ রিপোর্ট পাওয়ার পর চার সপ্তাহের ক্যাম্পের জন্য যুব দল চলে যাবে বিকেএসপিতে।

বিসিবির প্রধান চিকিত্সক দেবাশীষ চৌধুরী গতকাল এই প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘জৈব সুরক্ষা বলয়ে ক্রিকেটারদের দ্বিতীয় ধাপের অনুশীলন আগামীকাল (আজ) থেকে শুরু হতে যাচ্ছে। আজকে (গতকাল) বাংলাদেশ জাতীয় দল, অনূর্ধ্ব-১৯ দল এবং কোচিং স্টাফদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আগামীকাল (আজ) টেস্টের ফলাফলের ভিত্তিতে বাংলাদেশ জাতীয় দল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁ হোটেল এবং অনূর্ধ্ব-১৯ দল বিকেএসপিতে তাদের অনুশীলন কার্যক্রম শুরু করবে।’

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, হোটেল কর্তৃপক্ষ, বিকেএসপির সার্বিক সহযোগিতায় জৈব সুরক্ষা বলয় পরিচালনা করবে বিসিবি। দেবাশীষ চৌধুরী আরো বলেছেন, ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, হোটেল কর্তৃপক্ষ, বিকেএসপির সার্বিক সহযোগিতায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এই সুরক্ষা বলয়গুলো অর্থাত্ খেলোয়াড়রা যে স্থাপনাগুলো ব্যবহার করবে যেমন ট্রেনিং ভেন্যু, আবাসন, জিম , যাতায়াতে ব্যবহার করা পরিবহন সব বাসগুলো আমরা এক করে একটি সার্বিক জৈব সুরক্ষিত বলয় তৈরি এবং এটাকে পরিচালনা করার চেষ্টা করছি।’

এদিকে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা আজ দুপুর থেকে মিরপুরে অনুশীলনে নামবেন। আগামীকাল থেকে মিরপুর স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। করোনার লম্বা বিরতির পর আবারও ম্যাচের আবহে প্রবেশ করবেন ক্রিকেটাররা। ৪ অক্টোবর বিশ্রামে থাকবেন ক্রিকেটাররা। পরে ৫-৬ অক্টোবর দ্বিতীয় দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন মুশফিক-তামিমরা।