ব্যতিক্রমী সমুদ্রযাত্রায় পাগলাটে দম্পতি

14
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:
করোনার কারনে জীবনের নিরাপত্তার কথা ভেবে অনেক ভ্রমনপিপাসুই স্থগিত রেখেছে তাদের পৃথিবী দর্শন। আবার ভিন্ন চিত্রও আছে। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই পুরো পরিবার নিয়ে ব্যতিক্রমী এক সমুদ্র যাত্রায় নামছেন ইতালির এক দম্পতি। মহামারী ছড়িয়ে পড়ার আগেই তারা তাদের বিক্রি করে দেন। বাড়ি বিক্রির টাকা দিয়েই মেটানো হবে সমুদ্রযাত্রার ব্যয়।

সমুদ্র যাত্রায় স্টেফানো ও সারা সার্বারিসের সাথে থাকছে তাদের তিন সন্তান লাগো (১১), নিনা (৮) ও টিমো(৩) এবং পোষ্য কুকুরও। মাত্র ১৭ মিটারে একটি পালতোলা নৌকা নিয়ে তারা পাড়ি দেবেন আটলান্টিক ও জিব্রাল্টার প্রণালী। নৌকাটির নাম ‘শিবুমি’। যাকে তারা আদর করে ডাকেন লা চিয়েত্তোনা। সেপ্টেম্বরের শেষদিকে ইতালির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের লিগুরিয়ার লা স্পেজিয়া থেকে তাদের যাত্রা শুরু হবে। দীর্ঘ এক বছরের যাত্রায় প্রথমে তারা যাবেন স্পেনের বেলেযারিক দ্বীপে তারপর জিব্রাল্টার ও সর্বশেষ ক্যারিবিয় দ্বীপপুঞ্জগুলোতে।

সমুদ্র পথে সন্তানদের নিয়ে এমন যাত্রার বিষয়ে তারা বলেন- জীবনে এ ধরণের বিরল অভিজ্ঞতা অর্জন এবং শিক্ষার সুযোগ থেকে আমরা তাদের বঞ্চিত করতে চাইনি। বিশেষত এই মহামারীর সময় যেহেতু তাদের যাওয়ার সুযোগ আছে।

যাত্রা প্রসঙ্গে এই দম্পতি আরও বলেন, অবশ্যই এটা পাগলামো। তবে এমন ভিন্ন জীবন ধারণের অভিজ্ঞতা নিতে আমরা উন্মুখ।

প্রত্যহ জীবনের সাথে সমুদ্র জীবনের তুলনার মাধ্যমে মানুষের কাছে পরিবেশ সম্পর্কে সচেতনা তৈরি করা তাদের এই যাত্রার অন্যতম লক্ষ্য বলে জানান এই দম্পতি। এছাড়াও তাদের নৌকায় একটি ভ্রাম্যমান ল্যাব থাকবে যা বিভিন্ন জলজ সম্পদ, পানির ব্যবহার, ও মাইক্রোপ্লাস্টিক দ্বারা সমুদ্র দূষণ এবং সমুদ্রে ডলফিন ও তিমির উপস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবে। সংগ্রহ করা ডাটা ভিডিও এবং অনলাইন প্লাটফর্মের মাধ্যমে বেশ কয়েকটি ইতালিয়ান স্কুলের শিক্ষার্থীদের কাছে পৌছে দেওয়া হবে।