বাবরি মসজিদ ধ্বংস পরিকল্পিত নয়, অভিযুক্ত সবাই খালাস

18
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
বাবরি মসজিদ ভাঙার মামলায় অভিযুক্ত ৩২ জনকেই বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত। আজ বুধবার লখনৌয় সিবিআইয়ের এক বিশেষ আদালতের বিচারক সুরেন্দ্রকুমার যাদব এ রায় দেন। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রমাণের অভাব রয়েছে বলে জানান বিচারক।

বাবরি মসজিদ ধ্বংস পূর্ব পরিকল্পিত নয় বলেও জানিয়েছেন বিচারক সুরেন্দ্রকুমার। এসময় তিনি বলেন, অভিযুক্তরা মসজিদ ভাঙায় বাধা দিয়েছিলেন। প্রবীণ বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদবানি, মুরলিমনোহর জোশী, উমা ভারতীর মতো নেতা-নেত্রীদের বিরুদ্ধে মসজিদ ভাঙার ষড়যন্ত্র, পরিকল্পনা ও উস্কানি দেওয়ার অভিযোগ ছিল। তবে প্রায় তিন দশক ধরে চলা মামলায় আজ আদালত তাদের খালাস দিয়েছে।

রায় ঘোষণার সময় অভিযুক্তদের সশরীরে আদালতে হাজির থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই মুহূর্তে হৃষীকেশের হাসপাতালে ভর্তি উমা ভারতী। মহামারির মধ্যে বয়সজনিত কারণে লালকৃষ্ণ আদবানি এবং মুরলিমনোহর জোশী আদালতে যাবেন না বলে জানিয়েছেন আদবাণীর সচিব দীপক চোপড়া। তবে ভিডিও কনফারেন্সে আদালতে হাজিরা দেবেন বলে জানায় তারা।

এদিকে বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় মোট ৪৯ জন অভিযুক্তের মধ্যে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের অশোক সিঙ্ঘল, শিবসেনার বাল ঠাকরে, অযোধ্যার পরমহংস রামচন্দ্র দাসের মতো ১৭ জন ইতোমধ্যেই মারা গেছেন। বাকি ৩২ জনের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন আইনজীবী কেকে মিশ্র।

অন্যদিকে এই রায়কে কেন্দ্র করে আদালত চত্বরে ব্যাপক নিরাপত্তা নেয়া হয়। অভিযুক্তরা, তাদের আইনজীবী এবং সিবিআইয়ের আইনজীবীরা ছাড়া আর কারও আদালতে ঢোকার অনুমতি দেয়া হয়নি। একটি মাত্র ফটক দিয়েই সবাই আদালতে প্রবেশ করেছেন।