জন্মদিনে আনুষ্ঠানিকতা চাননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

11
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
নিজের জন্মদিনে সহকর্মীদের সঙ্গে মন্ত্রিসভার বৈঠক ছিল সরকারপ্রধান শেখ হাসিনার। তবে সরকারের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী এই ফোরামে জন্মদিনের কোনো আনুষ্ঠানিকতা ছিল না তারই নির্দেশনায়।

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রিসভার ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সচিবালয় প্রান্তে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীরা অংশ নিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭৩ পেরিয়ে ৭৪ বছরে পা দিয়েছেন সোমবার। ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের বড় সন্তান শেখ হাসিনা।

ক্ষমতাসীন দলের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনে নানা কর্মসূচি পালন করেছে তার দল আওয়ামী লীগ।

তবে করোনা ভাইরাস মহামারিকালে সরকারপ্রধানের জন্মদিনে আনুষ্ঠানিকতা নেই সরকারের মধ্যে।
মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উদযাপন নিয়ে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের কাছে জানতে চান সাংবাদিকেরা।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট বলে দিয়েছেন যে কোনো রকম কোনো আনুষ্ঠানিকতা না। যারা মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, উনার জন্য দোয়া কামনা করেছেন, উনার সফলতা কামনা করেছেন।

‘উনি পারসনালি এটা (জন্মদিন উদযাপন) এন্টারটেইন করতে চান নাই। ’