নাভালনি চাইলেই দেশে ফিরতে পারবেন: রাশিয়া

২৪ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ || ১২:৪২:৫৭
9
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
অবশেষে সুস্থ হয়ে জার্মানির বার্লিন হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা আলেক্সেই নাভালনি। বিষাক্ত নার্ভ এজেন্ট নোভিচক প্রয়োগে দীর্ঘদিন কোমায় ছিলেন তিনি। এখন তার শারীরিক অবস্থা ভালো বলে জানান চিকিৎসকরা। এদিকে, মস্কো আবারও দাবি করেছে, নাভালনিকে কোনো ধরনের বিষ প্রয়োগ করা হয়নি। তিনি চাইলে যেকোনো মুহূর্তেই দেশে ফিরতে পারেন।

জার্মানির বার্লিনের হাসপাতালেই দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা ও প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচক আলেক্সেই নাভালনি। টানা একমাস চিকিৎসার পর তিনি এখন পুরোপুরি সুস্থ। তিনি নিজেই হাসপাতালের সিঁড়িতে কারো সাহায্য ছাড়া দাঁড়িয়ে থাকা একটি ছবি পোস্ট করেছেন। ছবিতে ৪৪ বছরের এই নেতাকে রোগা দেখালেও বেশ সুস্থ মনে হয়। তবে শঙ্কা রয়েছে, শরীরে বিষের প্রভাব দীর্ঘ মেয়াদী ক্ষতির কারণ হতে পারে।

জার্মানির চিকিৎসকরা জানান, তিনি এখন বাসায় থেকেই বিশ্রাম নেবেন। জটিল অবস্থার পরও দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠায় তারা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। একাধিক পরীক্ষায় নাভালনিকে বিষপ্রয়োগের প্রমাণ মিললেও রাশিয়া বরাবরই তা অস্বীকার করে আসছে।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাকারোভা বলেন, আমরা দেখেছি, ইউরোপের দেশগুলো ও সেখানকার নেতা, বুদ্ধিজীবীরা কীভাবে নাভালনি ইস্যুতে জল ঘোলা করেছেন। নাভালনি একজন মস্কোর বাসিন্দা, তাকে নিয়ে পশ্চিমাদের বাড়াবাড়ি মানায় না। আর সবচেয়ে বড় কথা হলো, কোনো প্রমাণই পাওয়া যায়নি যে, তাকে স্নায়ু বিকল করার বিষাক্ত কোনো রাসায়নিক প্রয়োগ করা হয়েছ ‘।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মুখপাত্র জানান, নাভালনি চাইলেই দেশে ফিরতে পারবেন। এতে কোনো বাধা নেই। মস্কো যাওয়াটা তার নিজের ইচ্ছের ওপরই নির্ভর করছে।

পুতিন-বিরোধী এই নেতা গেলো ২০ আগস্ট রাশিয়ার একটি অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে করে সাইবেরিয়ার টমস্ক থেকে রাজধানী মস্কো যাওয়ার পথে অসুস্থ হয়ে পড়েন। ইউরোপের একাধিক দেশের পরীক্ষায় তার শরীরে বিষের প্রমাণ পাওয়া যায়।