গণস্বাস্থ্যের কিটের অনুমোদন নিয়ে যা বললেন জাফরুল্লাহ

২২ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ || ০৫:৪২:১৭
8
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:
করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি এবং অ্যান্টিজেন গবেষণায় সফল হওয়ার পরও এগুলো বিদেশ থেকে আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এতে গণস্বাস্থ্য সংস্থার ১০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

আজ মঙ্গলবার সারা দেশে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ৩০টি শাখায় করোনার বিরুদ্ধে সম্মুখযোদ্ধাদের শ্রদ্ধা জানাতে এক মিনিট করতালি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সংস্থাটি। রাজধানীর ধানমণ্ডির গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে এতে যোগ দেন ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এ সময় সম্মুখযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে টানা এক মিনিট করতালি দেওয়া হয়।

করতালি শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘এই সরকার ব্যবসায়ী। আমরা প্রথম দেশে অ্যান্টিবডি তৈরি করি। কিন্তু তাদের অংশীদার না করায় তারা আমাদের আর অনুমোদন দেয়নি। সরকার ব্যবসায়িক উদ্দেশে গণস্বাস্থ্যের কিটের অনুমতি না দিয়ে আমদানির অনুমোদন দিয়েছে। এটি ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে। এখন তারা বিদেশ থেকে এগুলো আমদানি করবে। এতে আমাদের ১০ কোটি টাকার মতো ক্ষতি হলো। নিঃস্ব হয়ে গেছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। আর এটি হয়েছে সরকারের সিদ্ধান্তের কারণে।’

জাফরুল্লাহ আরো বলেন, ‘সরকারের এই ভুল সিদ্ধান্তের জন্য জনগণের কাছে বিচার চাওয়া ছাড়া আর কিছু করার নেই।’ তিনি অভিযোগ করেন, ‘সরকার একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যেখানে আমাদের এখানেই অ্যান্টিবডি এবং অ্যান্টিজেন আছে, সেখানে সরকারের ভুল সিদ্ধান্তের কারণে বিদেশের কাছে হাত পাততে হবে। প্রথমে চীন এবং জাতিসংঘের কাছে সরকার হাত পেতেছে। নিজেদের সক্ষমতা প্রমাণের সুযোগ না দিয়েই বিদেশের কাছে হাত পাততে হচ্ছে।