মিন্নি কি অপরাধী? না নির্দোষ

১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ || ০৩:৪২:৪১
16
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:
আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার রায় আগামী ৩০শে সেপ্টেম্বর ধার্য করেছে আদালত। এদিকে আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে তার আইনজীবীর জিম্মায় দিয়েছে। সুতরাং মিন্নি কি অপরাধী নাকি নির্দোষ তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আগামী ৩০শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

সকাল দশটায় আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির উপস্থিতিতে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামান এর আদালতে রাষ্ট্রপক্ষ যুক্তি উপস্থাপন শুরু করে পৌনে একটায় শেষ করেন এবং হাইকোর্টের জামিনে থাকা মিন্নির জামিন বাতিল চেয়ে আবেদন করেন রাষ্ট্রপক্ষ।

যুক্তি উপস্থাপন শেষে আদালত আগামী ৩০শে সেপ্টেম্বর আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলা রায়ের দিন ধার্য করেছে আর হাইকোর্টের জামিনে থাকা মিন্নিকে তার আইনজীবী বরগুনা জেলা বারের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহাবুবুল বারী আসলামের জিম্মায় দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে নয়ন ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত করে। এরপর বীরদর্পে অস্ত্র উঁচিয়ে এলাকা ত্যাগ করে তারা। গুরুতর আহত রিফাত বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওই দিনই মারা যান।

গত ১ সেপ্টেম্বর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় রিফাতের স্ত্রী মিন্নিসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দুই ভাগে বিভক্ত অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেয় পুলিশ। একই সঙ্গে রিফাত হত্যা মামলার এক নম্বর আসামি নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

গত ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালত। অন্যদিকে গত ৮ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনার শিশু আদালত।

এ মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রাপ্তবয়স্ক আসামি মো. মুসা এখনও পলাতক রয়েছেন। এছাড়া নিহত রিফাতের স্ত্রী মিন্নিসহ অপ্রাপ্তবয়স্ক ৮ আসামি উচ্চ আদালত এবং বরগুনার শিশু আদালতের আদেশে জামিনে রয়েছে।