যৌন নিপিড়ক জবি শিক্ষক প্রামাণিকের বরখাস্ত চেয়ে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

১৪ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ || ১১:৪১:৫৩
7
Print Friendly, PDF & Email

জবি করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
যৌন নিপীড়নের অভিযোগে লঘুদণ্ডপ্রাপ্ত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষক আব্দুল হালিম প্রামাণিকের উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে মানববন্ধনে অংশ নেন তারা। এ সময় তারা অভিযুক্ত শিক্ষকে স্থায়ী বরখাস্তের দাবি জানান।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরা বলেন, যেহেতু তাকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে অর্থাৎ অভিযোগের সত্যতা রয়েছে। তাই এ ধরণের লোক দেখানো শাস্তি হাস্যকর। মূলত এই শিক্ষককে বাঁচানোর জন্য তিন বছর ধরে এই তদন্তটা চালিয়ে যাচ্ছে প্রশাসন। অবিলম্বে যৌন নিপিড়ক আব্দুল হালিম প্রামাণিককে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করতে হবে। অন্যথায় আন্দোলনে যাওয়ার হুশিয়ারি দেন তারা।

এ সময় শিক্ষার্থীরা, যৌন নিপিড়নের দায়ে বরখাস্ত আরেক গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক রাজীব মীরের কথা উল্লেখ করে বলেন, একই অভিযোগে একজনকে বহিষ্কার অন্যজনকে কেনো মাফ করা হলো। আব্দুল হালিম প্রামাণিককে বাঁচাতে প্রশাসন তিন বছর ধরে তদন্ত চালিয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে জবির নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষক আব্দুল হালিম প্রামাণিকের বিরুদ্ধে যৌন নিপিড়নের অভিযোগ আনেন দুই শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় দুই দফা তদন্তের পর ২০১৮ সালে ৭৭তম সিন্ডিকেট সভায় তাকে তিরস্কার ও দুই বছরের জন্য পদোন্নতি পিছিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু ভুক্তভোগী ছাত্রী এমন শাস্তিতে অসন্তুষ্ট জানিয়ে উপাচার্য বরাবর চিঠি দিলে ফের উচ্চতর তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সর্বশেষ চলতি বছর ৭ সেপ্টেম্বর ৮২তম সিন্ডিকেটে তাকে লঘু শাস্তি দেওয়া হয়৷ তবে তদন্ত কমিটির অস্পষ্ট বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সিন্ডিকেট সদস্যরা।