দমন-পীড়ন: বেলারুশে প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ, আটক শতাধিক

৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ || ১১:২১:০৬
8
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
বেলারুশের রাজধানী মিনস্কসহ অন্যান্য শহর থেকে একদিনে ১০০ জনকে আটক করা হয়েছে বলে দেশটির সরকার জানিয়েছে। বেলারুশে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ চতুর্থ সপ্তাহে গড়িয়েছে।

বেলারুশের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ভায়াসনা গতকাল রোববার ১৩০ জনকে আটক করা হয়েছে, এমন দাবি করলে সরকারের পক্ষ থেকে ১০০ জনকে আটকের কথা স্বীকার করা হয়।

দীর্ঘ ২৬ বছরের শাসনকালে এবারই সবচেয়ে বড় হুমকির মুখে পড়েছেন বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো। গত মাসে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ ওঠার পর তাঁর পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু হয়।

গত ২২ আগস্টেও রাজধানী মিনস্কে বিক্ষোভ করে লাখ লাখ মানুষ। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে মিনস্কে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের কাছেই বিক্ষোভ চলমান রয়েছে। বিক্ষোভ-সংঘর্ষে এ পর্যন্ত চারজনের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছে কয়েকশ মানুষ। প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো সম্প্রতি বিক্ষোভকারীদেরকে ‘ইঁদুর’ বলে আখ্যা দেন।

দমন-পীড়নের আশঙ্কায় দেশ ছেড়েছেন বিরোধীদলীয় বহু নেতা। অধিকারকর্মী ওলগা কোভালকোভা শনিবার জানিয়েছেন, গ্রেপ্তার এড়াতে পার্শ্ববর্তী দেশ পোল্যান্ডে আশ্রয় নিয়েছেন তিনি।

১৯৯৪ সাল থেকে ক্ষমতায় আছেন প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো। বিদেশি শক্তির ইন্ধনে তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হচ্ছে বলে অভিযোগ লুকাশেঙ্কোর।

অন্যদিকে, পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হচ্ছে বলে অভিযোগ আসছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছে, বিক্ষোভ মিছিল শেষে বাড়ি ফেরাদের আটক করা হচ্ছে।