বিএনপিপন্থী ৭ আইনজীবী এনেও মুক্তি মিললো না বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দদুলালের

২৮ই Auguই, ২০২০ || ০৬:৪২:৫৮
32
Print Friendly, PDF & Email

কক্সবাজার থেকে করসপন্ডেন্ট:
চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার থেকে বিএনপিপন্থী সাত আইনজীবী এনেও মুক্তি মিললো না অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যা মামলার প্রধান তিন আসামি বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলী ও এসআই নন্দদুলালের। এই তিন আসামিকে আবারও তিন দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। খারিজ করে দেয়া হয়েছে তাদের জামিন আবেদন।

শুক্রবার (২৮ আগস্ট) প্রত্যেক আসামির তৃতীয় দফায় চারদিন করে রিমান্ড চেয়ে র‌্যাবের আবেদনের ওপর দুপক্ষের শুনানি শেষে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এ আদেশ দেন।

আহসানুল হক হেনা ও ব্যারিস্টার সাঈদের নেতৃত্বে বিএনপিপন্থী এই আইনজীবী দল বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজার পৌঁছে গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেন।

প্রদীপ কুমার দাসকে আজকের আইনি সহায়তা দিতে আগের দিন অ্যাডভোকেট আহসানুল হক হেনা ও ব্যারিস্টার সাঈদের নেতৃত্বে চট্টগ্রামের বিএনপিপন্থী ৫ এই আইনজীবী দল বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজার পৌঁছান।

এর আগে বেলা আড়াইটার পর প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দদুলালকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে হাজিরের আগে করা হয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা।

এর আগে আরো দুই দফায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে র‌্যাব। আদালতের আদেশের পর আসামি পক্ষের আইনজীবীরা জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে যাবেন বলে গণমাধ্যমকে জানান।

জানা গেছে, এ্যাড. আহসানুল হক হেনা, পিতা:-এ্যাড.জহুরুল হক, থানা:-চকরিয়া, কক্সবাজার। তিনি বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে পিপি ও সাকা চৌধুরীর প্যানেল আইনজীবী ছিলেন।

ব্যারিষ্টার সাঈদ মঈনুল আহসান। তিনি সাকা চৌধুরীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট আহসানুল হক হেনার ছেলে।

চট্রগ্রাম থেকে যাওয়া এই টিমকে সহায়তা করে কক্সবাজারের বিএনপিপন্থী স্থানীয় কয়েকজন আইনজীবি।