জেকেজি’র ডা. সাবরিনার জালিয়াতি করা দুটি পরিচয়পত্রই ব্লক করলো ইসি

২৮ই Auguই, ২০২০ || ০৩:৩৮:০১
9
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
তথ্য জালিয়াতি করে দুই এলাকায় ভোটার হওয়ায় জেকেজি হেলকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরীর দুটি জাতীয় পরিচয়পত্রই ব্লক (অকার্যকর) করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

মিথ্যা তথ্য দিয়ে দু’বার ভোটার হওয়া ও দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র গ্রহণ করায় তার বিরুদ্ধে মামলা করতে জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগকে নির্দেশও দিয়েছে ইসি। সংশ্লিষ্ট সূত্রের মাধ্যমে এ তথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে ইসির এনআইডি অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, সাবরিনার দুটি জাতীয় পরিচয়পত্রই ব্লক করে দেয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে গুলশান থানা নির্বাচন কর্মকর্তাকে তার বিরুদ্ধে মামলা করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ডা. সাবরিনা মোহাম্মদপুর ও গুলশান নির্বাচন থানার অন্তর্গত এলাকায় দু’বার ভোটার হয়েছেন। দুটি জাতীয় পরিচয়পত্রেই নিজের বাবা ও মায়ের নাম ভিন্ন দিয়েছেন। এছাড়া বয়স ও ঠিকানাও পরিবর্তন করেছেন দুটি পরিচয়পত্রে।

দুদকের পক্ষ থেকে দুটি পরিচয়পত্রের বিষয়ে চিঠি দিয়ে জানানো হয় ইসিকে। এনআইডি উইংয়ের অফিসার ইনচার্জ (কমিউনিকেশনস) স্কোয়াড্রন লিডার কাজী আশিকুজ্জামান জানান, দুদকের চিঠির জবাব ও আইনানুগ পরবর্তী করণীয় বিষয়ে সোমবারের মধ্যে সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে।

এর আগে, ভিন্ন তথ্য দিয়ে জালিয়াতি করে দুইটি এনআইডি কার্ড নিজের নামে নেন ডা. সাবরিনা। এ বিষয়ে দুদক চিঠি দেয়ার পর বিষয়টি খতিয়ে দেখা শুরু করে নির্বাচন কমিশন।

দুটি এনআইডি কার্ডের তথ্য একেবারেই ভিন্ন। একটিতে মায়ের নামের জায়গায় লেখা রয়েছে কিশোয়ার জেসমিন। অন্যটিতে জেসমিন হুসেইন। একটি কার্ডে তার স্বামীর নাম আর এইচ হক।

অন্যটিতে আরিফুল চৌধুরী। একটিতে তার জন্মসাল ১৯৭৮ সাল। ৫ বছর কমিয়ে অন্যটিতে দেয়া হয়েছে ১৯৮৩ সাল। একটি কার্ডে পেশা ডাক্তার, অন্যটিতে সরকারি চাকরি। একটি আইডি কার্ডে তার স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা মোহাম্মদপুর পিসি কালচার হাউজিং সোসাইটি। অন্যটিতে রয়েছে বাড্ডার প্রগতি সরণি।