কওমি মাদ্রাসায় ধর্ষণ ও নিপীড়নের প্রমাণ ‘বিষফোঁড়া’ বই নিষিদ্ধ

574
Print Friendly, PDF & Email

লিটারেচার ডেস্কঃ

এ বছর একুশে বইমেলায় জংশন প্রকাশনী থেকে প্রকাশ পায় কওমি মাদ্রাসায় শিশু ধর্ষনের প্রমানসমেত নিরীক্ষাধর্মী বই ‘বিষফোঁড়া’। লেখক সাইফুল বাতেন টিটো। তিনি নিজেই সরাসরি মাদ্রাসা শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে তুলে এনেছিলেন কওমি মাদ্রাসার এসব অন্ধকার দিক। এই বইটিকেই দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা পরিপন্থী ও জননিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে দাবি করে নিষিদ্ধ করা হয়েছে আজ।

‘বিষফোঁড়া’ উপন্যাসটি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে গত ২৪ আগস্ট গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার।
 
গেজেটে বলা হয়েছে, সরকারের কাছে এ মর্মে প্রতীয়মান হয় যে, সাইফুল বাতেন টিটো রচিত ও নারায়ণগঞ্জ আড়াইহাজারের জালাকান্দির ‘জংশন’ প্রকাশিত কওমি মাদ্রাসার শিশু ধর্ষণ বিষয়ক ‘বিষফোঁড়া’ উপন্যাসটি দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা পরিপন্থী।

কী আছে বিষফোঁড়া বইটিতে?

প্রতিদিন কওমি মাদরাসায় কতোগুলো বালক ধর্ষণের শিকার হয়?
এইসব ধর্ষণের কি আদৌ কোনো বিচার হয়?
কেন একটি শিশু মাদরাসায় টিকতে চায় না?
মাদরাসায় প্রতিদিন যতগুলো বালক ধর্ষণের শিকার হয় তার কতোগুলো সংবাদ আমরা পাই?

এসব প্রশ্নের উত্তরই লেখক দিয়েছেন তার ছদ্মবেশী অভিযানে সরাসরি মাদ্রাসা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের থেকে পাওয়া বয়ান থেকে।

মাদ্রাসায় নিপীড়নের এমন আরও প্রমাণ পাবেন লেখকের পেজ এবং বিষফোঁড়া বইটিতে

উপন্যাসটি প্রকাশের পর সবশেষ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে একুশে বই মেলায় নিয়ে আসা হয়, যার প্রথম মুদ্রণের ৫০০ কপি বইমেলায় বিক্রি হয়েছে।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে উপন্যাসটির রচয়িতা সাইফুল বাতেন টিটো বাংলানিউজে বলেন, যারা উপন্যাসটি নিষিদ্ধ করেছে তারা বইটি আসলে পড়েনি। উপন্যাসটি নিষিদ্ধ করার কোনো ব্যাকগ্রাউন্ড নেই।

তিনি দাবি করে বলেন, মাদ্রাসায় গিয়ে শিক্ষার্থী-শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে বইটি লিখেছি। দেশের বিশিষ্টজনেরা বইটি পড়ে সাধুবাদ জানিয়েছেন। তারা বলেছেন এটি একটি ইতিহাস।

তিনি বলেন, প্রথম মুদ্রণে ব্যাপক সাড়া পেয়ে আমরা দ্বিতীয় মুদ্রণে গেছি, প্রচুর মানুষ কিনছে। এরপর এতদিনে সরকারের টনক নড়লো। একটা স্বাধীন দেশে বই নিষিদ্ধ হবে এটা আশা করা যায় না। এটা ষড়যন্ত্র, বাকস্বাধীনতা পরিপন্থী।

কবি নির্মলেন্দু গুনের সাথে সেলফিবন্দী সাইফুল বাতেন টিটো

উপন্যাসের নিষিদ্ধ ঘোষণা প্রত্যাহার চান রচয়িতা সাইফুল বাতেন টিটো।

আর ‘জংশন প্রকাশনী’র সত্ত্বাধিকারী মোশাররফ মাতুব্বর বাংলানিউজকে বলেন, মেলায় ছাড় দেওয়ার পর উপন্যাসটি প্রতি কপি ১৯২ টাকায় বিক্রি করা হয়। উপন্যাসটি যে নিষিদ্ধ করা হয়েছে সে বিষয়ে আমি এখনো জানি না।

লেখকের অফিশিয়াল পেইজের ঠিকানা পাবেন এই লিংকে। থাকছে বিষফোঁড়া সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানার সুযোগ