মহামারির করোনা এখন অতীত, উহানে চলছে পার্টি ( ভিডিও)

১৯ই Auguই, ২০২০ || ১১:৩৯:৪২
25
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
বিশ্ব এখনও করোনা মহামারির সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। কোথাও কোথাও করোনার প্রকোপ কমে এলেও পরিস্থিতি এখনও বিপজ্জনক। বিশ্বজুড়েই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সব কাজ স্বাভাবিক ভাবে চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা হচ্ছে। এই অবস্থায় যেখান থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ল, চীনের সেই উহান করোনা জয়ের পর সেখানে চলছে রীতিমতো পার্টি। খবর- সংবাদ প্রতিদিন।

উহানের বিখ্যাত মায়া বিচ। গত সপ্তাহান্তে সেখানে রীতিমত মিউজিক ফেস্টিভ্যালের আয়োজন করা হয়। দলে দলে যুবক-যুবতী সেখানে গিয়েছেন তো বটেই, তাদের কারও মুখে মাস্ক নেই, গা ঘেঁষাঘেঁষি করে দাঁড়িয়েই হুল্লোড় করেছেন। দেখে মনেই হচ্ছে না যে বছরের শুরু থেকে এখান থেকেই মারণ করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছিল বিশ্বে, যার সঙ্গে এখনও কঠিন লড়াই চলছে। একদা করোনার আঁতুড়ঘরের এই ছবি দেখে আঁতকে উঠছেন অনেকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় উহানের সেই পার্টির কিছু ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, একটি ওয়াটার পার্কে কয়েক হাজার মানুষ জড়ো হয়েছেন। তাদের মধ্যে কোনও সামাজিক দূরত্বের বালাই নেই, নেই মাস্কের চিহ্ন মাত্র।

উহানের মতো জায়গাতে লকডাউন উঠে যাওয়ার পরও সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। চীনের বিভিন্ন জায়গায় রেস্তরাঁ, বারগুলি খুললেও পর্যাপ্ত সতর্কতা অবলম্বনের কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু উহানে ওয়াটার পার্কে যে ভাবে কাছাকাছি দাঁড়িয়ে নাচ-গান চলছে, তাতে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

এদিকে এইসব ছবি ও ভিডিও দেখে নেটাগরিকরা কটাক্ষ করতে ছাড়েননি চীনকে। তাদের বক্তব্য- উহান থেকে ভাইরাস গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার পর, ‘চীনের ভাইরাস’ বলায় আপত্তি করে সে দেশের শাসক থেকে সাধারণ মানুষ। আর তারাই কিনা এ ভাবে পার্টি করছেন!

করোনা সংক্রমণ কতটা ভয়াবহ, তা বোঝার পর জানুয়ারি মাস থেকে উহানসহ ধাপে ধাপে গোটা চীনেই লকডাউন জারি করা হয়েছিল। শীতকালে শুনশান ইউহানের রাস্তাঘাট। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি সেসময় বেশ ভাইরাল হয়েছিল, রাস্তার ধারে অসুস্থ বৃদ্ধ পড়ে আছেন, অথচ উদ্ধার করার কেউ নেই।

মাস চারেকের মধ্যে পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় তা তুলেও নেওয়া হয় ধীরে সুস্থে। জুলাই মাসে পুরোপুরি আগের চেহারায় ফিরে আসে দেশটি। খুলে যায় স্কুল, সিনেমা হলও। নির্জন রাস্তাঘাট ফের গণপরিবহণ আর লোকজনের চলাফেরায় মুখর হয়ে ওঠে।