দেশে হঠাৎ বেড়েছে করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্ত, মৃত্যুর তালিকায় আরও ৪৬ জন, শনাক্ত ৩২০০

১৮ই Auguই, ২০২০ || ০৪:০০:৫০
34
Print Friendly, PDF & Email

স্পেশাল করসপন্ডেন্ট, ঢাকা::
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আরও ৩ হাজার ২০০ জনের দেহে। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত হলেন ২ লাখ ৮২ হাজার ৩৪৪ জন। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে আরও ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৩ হাজার ৭৪০ জন।

মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে করোনা ভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন আরও ৩ হাজার ২৩৪ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৬২ হাজার ৮২৫ জন। যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে ৩৫ জন পুরুষ এবং ১১ জন নারী।

এর একদিন আগে সোমবার (১৭ আগস্ট) দেশে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয় আরও ২ হাজার ৫৯৫ জনের দেহে। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান আরও ৩৭ জন।

২৪ ঘণ্টায় নতুন ৪৬ জন মৃত্যুবরণকারীর মধ্যে পুরুষ ৩৫ জন ও নারী ১১ জন। এ পর্যন্ত পুরুষ মৃত্যুবরণ করেছেন দুই হাজার ৯৫৩ জন ও নারী ৭৮৭ জন। এ ছাড়া মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে দুজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৭ জন ও ষাটোর্ধ্ব ২২ জন রয়েছেন। অন্যদিকে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ২৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ছয়জন, রাজশাহী বিভাগের চারজন, খুলনা বিভাগের সাতজন, বরিশাল বিভাগের দুজন, রংপুর বিভাগের তিনজন ও ময়মনসিংহ বিভাগের একজন রয়েছেন।

এদিকে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৭ লাখ ৭৭ হাজার ৪৪০ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৪৪৯ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ৪৭ লাখ ৯১ হাজার ৮৬৫ জন।
বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৭৩ হাজার ৭১৬ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এ দেশটিতে, ৫৬ লাখ ১২ হাজার ২৭ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

আর আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩ লাখ ৬৩ হাজার ২৩৫ জন এবং এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১ লাখ ৮ হাজার ৬৫৪ জন।
মৃতের সংখ্যায় ব্রাজিলের পরেই আছে মেক্সিকো। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫৭ হাজার ২৩ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ২৫ হাজার ৭৩৩ জন।

করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে ভারত। দেশটিতে করোনায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২৭ লাখ ১ হাজার ৬০৪ জন। মৃত্যুর দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে দেশটি। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৫১ হাজার ৯২৫ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে আক্রান্ত ৯ লাখ ২৭ হাজার ৭৪৫ জন। আর মৃতের সংখ্যা ১৫ হাজার ৭৪০ জন।

সুস্থতার দিক থেকেও প্রথম অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র (২৯ লাখ ৭৩ হাজার ৫৮৭ জন), দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল (২৪ লাখ ৭৮ হাজার ৪৯৪ জন), এবং তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত (১৯ লাখ ৭৬ হাজার ২৪৮ জন)।

বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হলেও প্রথম মৃত্যুর খবর আসে ১৮ মার্চ। দিন দিন করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ায় নড়েচড়ে বসে সরকার। ভাইরাসটি যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য ২৬ মার্চ থেকে বন্ধ ঘোষণা করা হয় সব সরকারি-বেসরকারি অফিস। কয়েক দফা বাড়িয়ে এ ছুটি ৩০ মে পর্যন্ত করা হয়। ছুটি শেষে করোনার বর্তমান পরিস্থিতির মধ্যেই ৩১ মে থেকে দেশের সরকারি-বেসরকারি অফিস খুলে দেয়া হয়। তবে বন্ধ রাখা হয়েছে