আমিরাতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিত করার হুমকি তুরস্কের

১৪ই Auguই, ২০২০ || ০৮:৫৮:১৬
12
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তায়েপ এরদোয়ান বলেছেন, তারা সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার চিন্তাভাবনা করছেন। ইসরায়েলের সঙ্গে আমিরাত আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক স্থাপনের পর তুর্কি প্রেসিডেন্ট এই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করলেন। খবর আনাদোলু এজেন্সির।

দখলদার ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের ঘটনায় আমিরাতের কঠোর সমালোচনা করেছেন এরদোয়ান। পশ্চিম তীর দখলের প্রতিবাদে অধিকাংশ আরব দেশ ঐতিহাসিকভাবেই ইসরায়েলের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন থেকে বিরত থেকেছে।

তবে বৃহস্পতিবার আমিরাত জানায়, তারা ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ব্যাপারে সম্মত হয়েছে। এর বিনিময়ে ইসরায়েল পশ্চিম তীর সংযুক্তি করার পরিকল্পনা আপাতত ‘স্থগিত’ রাখবে। আরব দেশগুলোর মধ্যে কেবল মিশর ও জর্ডানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে ইসরায়েলের।

আমিরাতের সঙ্গে এই চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল। কিন্তু ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ জোরালোভাবে এটা প্রত্যাখ্যান করেছে।

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলিদের আচরণের কারণে বহু বছর ধরেই দেশটির কঠোর সমালোচনা করে আসছে এরদোয়ান ও তার সরকার। আমিরাত-ইসরায়েল চুক্তির কিছুক্ষণ পরই তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নিজেদের সংকীর্ণ স্বার্থের জন্য ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করায় ইতিহাস এবং এই অঞ্চলের মানুষের বিবেক সংযুক্ত আরব আমিরাতের এই ভণ্ডামিপূর্ণ আচরণকে ভুলবে না এবং কখনই ক্ষমা করবে না।