লকডাউন উঠে যাচ্ছে পাকিস্তানে

10
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
পাকিস্তানে অধিকাংশ ক্ষেত্রে লকডাউন তুলে নেওয়া হয়েছে। ‌‘স্বাভাবিক’ অবস্থায় ফেরার লক্ষণ হিসেবে রেস্তোরাঁ, সিনেমা হল ও ট্যুরস্পট গুলো ফের চালু হয়েছে।

মার্চ মাসেও পাকিস্তানের কোনো কোনো ক্ষেত্রে আংশিক লকডাউন ছিল। তবে এর পর থেকে তা ধীরে ধীরে সহজ হতে শুরু করে। খবর বিবিসির।

পাকিস্তানের জনসংখ্যা ২৩ কোটি। এর মধ্যে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৬ হাজার। পাকিস্তানের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার দুর্বলতা সত্ত্বেও পশ্চিমা উন্নত দেশগুলোর তুলনায় করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা অনেক কম। উদাহরণ স্বরূপ, যুক্তরাজ্যে লোক সংখ্যা ৭ কোটি। স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা পাকিস্তানের চেয়ে অনেক উন্নত হওয়া সত্ত্বেও সেখানে মারা গেছেন ৪৬ হাজার মানুষ।

অবশ্য, পাকিস্তানে করোনা পরিসংখ্যান যুক্তরাজ্যের মতো অতটা উন্নত নয়। তবু গত দুই মাস ধরে চিকিৎসকদের দেওয়া তথ্য এবং হাসপাতালগুলোর রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, করোনা বিস্তারের নিম্নমুখী হারের কথা। জুনের প্রথমার্ধে দেশটিতে করোনা পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি ঘটেছিল। তবে এর পর থেকে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা কমতে থাকে।

এর কারণ হিসেবে পাকিস্তানে তরুণ জনসংখ্যাকে ধরা হচ্ছে। পাকিস্তানি জনগণের বয়সের গড় ২২, যেখানে যুক্তরাজ্যে তা ৪১। তবে এরপরও বিশেষজ্ঞরা লকডাউন শিথিলের পদক্ষেপকে মেনে নিচ্ছেন না। তারা সতর্ক করে বলেছেন, এটা হয়তো পরিস্থিতিকে খারাপের দিকেও নিয়ে যেতে পারে।