কুড়িগ্রামে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ; ২ ডাকাত গ্রেপ্তার

৮ই Auguই, ২০২০ || ০৮:১০:৪৫
41
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
কুড়িগ্রাম রাজারহাটের ছিনাই ইউনিয়নের মহিধর খন্ডক্ষেত্র গ্রামে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় প্রধান দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার ভোরে তাদের নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের আব্দুস সালাম (৪২) ও লালমনিরহাট জেলার মহেন্দ্রনগর এলাকার আব্দুল মালেক (৩৮)।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার ভোরে রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের সালামকে তার বাড়ি থেকে এবং লালমনিরহাট জেলার মহেন্দ্রনগর এলাকা থেকে পৃথক অভিযানে মালেককে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে গ্রেপ্তারকৃতরা আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ২৫ জুলাই রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বাড়ির ঘরের তালা ভেঙে তুলে নিয়ে গিয়ে বাড়ির পাশে একটি জঙ্গলে ধর্ষণ করে একদল দুর্বৃত্ত। এছাড়াও তারা ধর্ষিতা ছাত্রীর বাবা রেজা শাহ পাহলভি (৪৮) ও মা শাহনাজ পারভীনের (৩৮) উপর হামলা করলে তারা গুরুতর আহত হন।

এ সময় তার বাড়িতে থাকা স্বর্ণালংকার ও এক লাখ ৬০ হাজার টাকাও লুট করে নিয়ে যায় তারা। এ ঘটনায় পরদিন রাজারহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর পুলিশ শনিবার ভোররাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মুল দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান বলেন, দুই আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী পেলে পরবর্তীতে পুরো বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।