নওগাঁয় বিলের রাস্তা ঝুঁকিপূর্ণ, দর্শনার্থীদের প্রবেশ নিষেধ

৮ই Auguই, ২০২০ || ০৮:০০:১০
5
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, নওগাঁ:
নওগাঁ সদর উপজেলার হাঁসাইগাড়ী বিলের মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া রাস্তাটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য দর্শনার্থীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।

এছাড়া ওই রাস্তা দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচলেও নিষেধ করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সকলের নিরাপত্তার স্বার্থে নওগাঁ সদর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, গত কয়েকদিন থেকে বাতাসের কারণে বিলে পানির ঢেউ বৃদ্ধি পেয়েছে। আর ঢেউয়ের কারণে রাস্তাটি ভেঙে যাওয়ায় অনেকটা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে বাঁশ পুতে আটকানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। এদিকে, বিলের মধ্য দিয়ে রাস্তা হওয়ায় এ বছর অনেকটা দেবে নিচু হয়েছে। ফলে রাস্তার অনেক জায়গায় পানি উঠেছে। এছাড়াও, অনেক জায়াগায় ব্লক সরে গিয়ে রাস্তা ভেঙ্গে গেছে। এ অবস্থায় বিলে দর্শনার্থী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন।

নওগাঁ সদর উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় অবস্থিত এই হাঁসাইগাড়ী বিল। শহর থেকে প্রায় আট কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে গেলেই দেখা মিলবে এই বিলের। বিলের মাঝ দিয়ে সাপের মত এঁকেবেঁকে গেছে একটি পাকা রাস্তা। এ রাস্তাটি সদর উপজেলার হাঁসাইগাড়ী ও দুবলহাটি ইউনিয়নকে যুক্ত করেছে। দুবলহাটি ইউনিয়নের গোয়ালি খামারবাড়ি থেকে হাঁসাইগাড়ী ইউনিয়নের কাটখৈর পর্যন্ত বিলের মাঝে প্রায় আট কিলোমিটার রাস্তা রয়েছে।

এদিকে, করোনা মহামারীর মধ্যে জেলার সকল বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকায় সকলেই এই বিলে আসে সময় কাটাতে। ঈদকে ঘিরে এ বিলে দর্শনার্থীদের ঢল নামে। বাতাসে পানির ছলাৎ ছলাৎ ঢেউ এসে পাকা রাস্তায় আঁছড়ে পড়ে। বিলের পানিতে ফুটে থাকা শাপলা, শ্যালুক, কলমি, হ্যানচা আরও নাম না জানা কত-শত ফুল মুগ্ধ করে সবাইকে। এই মনোমুগ্ধকর পরিবেশ দেখেতে জেলার বিভিন্নস্থান থেকে ছুটে আসে বিনোদমপ্রেমীরা। বিলে যাওয়ার একমাত্র ওই পাকা রাস্তাটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় প্রশাসন ওই এলাকায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

এ ব্যাপারে নওগাঁ উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মির্জা ইমাম উদ্দিন বলেন, ওই ঝুঁকিপূর্ণ রাস্তা দিয়ে যারা নিয়মিত যাতায়াত এবং হাল্কা যানবাহন চালাতো তারাই শুধু যেতে পারবেন। তবে, ভারী যানবাহন ও দর্শনার্থীদের জন্য ওই রাস্তা ব্যবহার করতে নিষেধ করা হয়েছে।

নওগাঁ সদর আসনের সাংসদ ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন বলেন, জরুরীভাবে রাস্তাটি সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এছাড়াও, ওই এলাকার সৌন্দর্য বর্ধনেরও পরিকল্পনা আছে আমাদের।