নৌকা ডুবিতে নিহত পরিবারে সাদাকাহ ফাউন্ডেশনের অর্থ সহায়তা বিতরণ

৮ই Auguই, ২০২০ || ০১:৩৩:০৮
12
Print Friendly, PDF & Email

খালেদ খুররম পারভেজ, ময়মনসিংহ:
জানাজা, দাফন-কাফন সহায়তার পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেবা ভিত্তিক সংগঠন “সাদাকাহ ফাউন্ডেশন” নেত্রোকোনায় নৌকা ডুবিতে নিহত ময়মনসিংহ সদর উপজেলার সিরতা ইউনিয়নের ১৩ পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছে। শুক্রবার বাদ জুম্মা চর সিরতার কোনাবাড়ি মারকাযুস সুন্নাহ মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে ১৩ জনের পরিবারের কাছে এ অর্থ সহায়তার বিতরণ করা হয়।

এ বিতরণ অনুষ্ঠানে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ হোসাইন, সিরতা ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাইদ ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

আন্তর্জাতিক সেবা সংগঠন এপেক্স ক্লাব অব ব্রহ্মপুত্র এই কার্যক্রমের ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করে। এপেক্স ক্লাব অব ব্রহ্মপুত্র’র সভাপতি ও স্থানীয় সমাজসেবক এপেক্সিয়ান আলী ইউসুফ জানান, নেত্রকোনার উচিতপুরে ভয়াবহ ট্টলার ডুবির ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে আমেরিকার এই সংগঠনের নজরে আসে। সঙ্গে সঙ্গেই তারা কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড.ইকবাল হোসেনের মাধ্যমে স্থানীয়দের সাথে যোগাযোগ করেন। এরপর ঢাকা থেকে একটি টেলিভিশন সাংবাদিকের মাধ্যমে সকল তথ্য নিয়ে ওই রাতেই সাদাকাহ ফাউন্ডেশন এই অর্থিক সহযোগিতার ঘোষণা দেয়।

মুলতঃ এই সংগঠন এ দুর্ঘটনায় লাশ দাফনের আগেই নিহতের পরিবারের পাশে দাঁড়ায় সহমর্মী হয়ে। ময়মনসিংহের মুফতি সাইফুল্লাহ মুমিন একটি জানাজায় প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন। কিন্ত ৫ আগস্ট রাত বেশি হয়ে যাওয়ায় তাৎক্ষণিকভাবে অর্থ সহায়তা পৌঁছে দেয়া সম্ভব হয়ে উঠেনি। তাই শুক্রবার বাদ জুমা সিরতা ইউনিয়নের নিহত ১৩ পরিবারের স্বজনদের কাছে এই অর্থ সহায়তা তুলে দেয়া হয়।

ময়মনসিংহ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আশরাফ হোসাইন তার বক্তব্যে বলেন, এই দুর্ঘটনা সিরতা এলাকাসহ পুরো ময়মনসিংহের জন্য অনেক ক্ষতি হল। নিহতদের পরিবারগুলো আজ নি:স্বপ্রায়। আমেরিকান সংগঠন সাদাকাহ ফাউন্ডেশনকে মানবতার প্রতিক হিসেবে আখ্যা দিয়ে তিনি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান সংস্থাটির শীর্ষ কর্মকর্তাদের। দুর্গত পরিবারগুলোর পাশে দাড়ানো ও আর্থিক সহায়তা করায় এলাকার মানুষের পক্ষ থেকে সাদাকাহ ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান সিরতা ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাইদ।

এপেক্স ক্লাব অব ব্রহ্মপুত্র’র সভাপতি ও স্থানীয় সমাজসেবক আলী ইউসুফ বলেন, সাদাকাহ ফাউন্ডেশনের স্থানীয় প্রতিনিধি হিসেবে এই সহায়তা পৌছে দিতে পেরে কৃতজ্ঞ সাদাকাহ ফাউন্ডেশনের প্রতি। নিহতদের পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, আমরা যাদের হারিয়েছি তাদের ফিরে পাবো না, তবে এই দু:সময়ে সাদাকাহ ফাউন্ডেশনের লোকজন সবসময়ে আমাদের খোঁজ খবর রাখছেন এবং আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন আর্থিক সহায়তা নিয়ে, এ জন্য সাদাকাহ ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান তারা।