বৈরুত বিস্ফোরণ : হিরোশিমা-নাগাসাকিকে মনে করিয়ে দিয়েছে

৫ই Auguই, ২০২০ || ০২:০৭:১৪
29
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
বৈরুতের গভর্নর মারওয়ান আবুদ বিস্ফোরণকে জাপানের হিরোশিমা-নাগাসাকির সাথে তুলনা করেছেন। ঘটনার ঘোর কাটিয়ে তিনি যখন কথা বলছিলেন মিডিয়ার সামনে তখন রীতিমতো কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি। বলেছেন, এমন পরিস্থিতি আমাকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ সময়ের হিরোশিমা নাগাসাকির কথা মনে করিয়ে দেয়।

লেবাননের বৈরুত বন্দরে প্রচণ্ড বিস্ফোরণে ধ্বংস হয়ে গেছে বন্দর, আশেপাশের এলাকা, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, তুর্কি দূতাবাস। সিএনএন বলছে আসেপাশে ১০ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত এই বিষ্ফোরণে ক্ষতি ছড়িয়েছে। প্রাথমিক হিসাবে অন্তত ৭৮ জন নিহত এবং ৩ হাজার ৭ শ’ জন আহত হওয়ার কথা জানানো হচ্ছে। এই সংখ্যা বাড়তে পারে। অসংখ্য মানুষ হতাহত হয়েছে।

অন্তত ১০ জন ফায়ার কর্মী নিখোঁজ হওয়ার কথা বলেছেন গভর্নর আবুদ নিজেই। বিষ্ফোরণের কারণ এখনো জানা যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে একটি ওয়্যার হাউজে আগুন লাগার কারণে সেটি বিষ্ফোরিত হয়। সেখানে বিষ্ফোরক মজুদ ছিলো এমনটাই বলছে মিডিয়াগুলো।

লেবাবনের অভ্যন্তরীন নিরাপত্তা প্রধান আব্বাস ইব্রাহীমকে উদ্ধৃত করা হচ্ছে এই খবরে।ওদিকে বৈরুতের হাসপাতালগুলোতে জরুবি রক্তের প্রয়োজন। সকল গ্রুপের মানুষকে রক্তদানে আহ্বান জানানো হয়েছে।

বিশ্ব নেতারা সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বৈরুতের দিকে। ফ্রান্স, জার্মানি, ইরান, ইসরাইল, ইতালি, মালয়েশিয়া, কাতার, সৌদিআরব, তুরষ্ক, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রের সরকার প্রধানরা লেবাননের পাশে থাকার কথা বলেছেন।