কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে ২৫০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

৪ই Auguই, ২০২০ || ০৮:২৩:১৭
7
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, কুড়িগ্রাম:
কুড়িগ্রামের ধরলা ব্রীজ সংলগ্ন বাঁধের বন্যায় আশ্রয় নেওয়া ২৫০টি পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহকারী প্রেস সচিব এবিএম সরওয়ার-ই-আলম জীবনের সহযোগিতায় ৪ আগষ্ট (মঙ্গলবার) দুপুরে বানভাসি ২৫০টি পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। রাজারহাট উপজেলার নাজিম খান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহকারী প্রেস সচিব এবিএম সরওয়ার-ই-আলম জীবনের বাবা মো: আকবর আলী সরকার।

সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের ত্যাগী ও জনপ্রিয় নেতা সাবেক সহ-সভাপতি মো: রাজু আহমেদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন- কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি দিদারুল ইসলাম রোমান, কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মো: ফিরোজ শাহী, এস এম তাসাদ্দুক হোসেন তাপস, সাবেক সভাপতি কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের স ম মনিরুল ইসলাম, সাবেক যুগ্ন আহবায়ক আল-মুসতাক্বীম বিল্লাহ মিশু সদ্য সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জেলা ছাত্রলীগ, কুড়িগ্রাম, মনিনুর রহমান মনি সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতা, সাবেক সদস্য জেলা ছাত্রলীগ ও কুড়িগ্রাম সদর উপজেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী আনিসুল বারী, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের পাঠাগার বিষয় সম্পাদক আল হেলাল রাকিব, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের স্কুল ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক আতিকুর রহমান রাব্বি, আব্দুল্লাহ আল কাফী, মেহেদী হাসান মিশুক এবং এ আর এম মেহেদী আমীন, সোলায়মান গাদ্দাফী প্রমুখ।
আরও উপস্থিত ছিলেন- জাহেদুল ইসলাম রুবেল, রাব্বু, রুদ্র, বিপাশ, বাধন, উৎস, আজিজুল, বিদ্যুৎ, সৈকত, হৃদয়, প্রান্ত, সৌরভ, রানা, হিমেল, ফুয়াদ, সিহাব, সাকিবসহ অনেকেই।

করোনার পর দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় কুড়িগ্রামের সদর উপজেলার শত শত বানভাসি মানুষের চোখেমুখে ছিল অমানিশার অন্ধকার। বন্যা পরবর্তী ধান বীজসহ সবধরনের পুনর্বাসনের নিশ্চয়তা নিয়ে এখন নির্বাক বানভাসি মানুষেরা। ১ মাসের দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় তাদের চোখেমুখে শুধুই হতাশার ছায়া। করোনার পাশাপাশি বন্যার এই দুর্যোগময় সময়ে কয়েকবার ত্রাণ সহায়তা পেলেও তা যথেষ্ট ছিলনা। ঠিক এমন এক সময়ে প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য সহকারী প্রেস সচিব এবিএম সরওয়ার-ই-আলম জীবনের সহযোগিতায় খাদ্য সামগ্রীসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে বানভাসিদের পাশে হাজির হন কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মী।

ছকিনা বেগম পরিবারসহ অনেকেই পেয়ে যান খাদ্যসামগ্রী ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। এ যেন মেঘের আড়ালে সূর্যের আলোর ঝলকানি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই সহায়তা পেয়ে বানভাসিরা আবেগে আপ্লূত হয়ে পড়েন এবং বলেন মহান আল্লাহ জীবন বাবাজির মঙ্গল করুক।

করোনার পর দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় দিশেহারা অনেক মানুষ। নির্বাক এই মানুষগুলোর মুখে হাসি ফোটানোর জ‍ন‍্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহকারী প্রেস সচিব সরওয়ার-ই-আলম সরকার জীবন, সে জন্য জেলা ছাত্রলীগ পরিবার কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে সরওয়ার-ই-আলম সরকার জীবনকে।