করোনা: আক্রান্ত ব্রাজিলের ফার্স্ট লেডি!

৩১ই জুলাই, ২০২০ || ১০:২০:৪৮
10
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
ব্রাজিলের ফার্স্ট লেডি মিশেল বলসোনারোর শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে। প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনা থেকে সেরে ওঠার পাঁচ দিনের মাথায় তাঁর স্ত্রী আক্রান্ত হলেন। বৃহস্পতিবার দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে ফার্স্ট লেডির কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ার খবর জানানো হয়।

প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, ফার্স্ট লেডি মিশেল বোলসোনারোর করোনা নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তবে তিনি ভাল আছেন এবং সব নিয়মই মেনে চলবেন।

৩৮ বছর বয়সী ফার্স্ট লেডি মিশেল বোলসোনারো ছাড়াও এদিন দেশটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী মার্কোস পন্টেসের শরীরেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এনিয়ে দেশটির পাঁচজন মন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হলেন।

প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, করোনায় আক্রান্ত হলেও ‘স্বাস্থ্য ভালো আছে’ ৩৮ বছর বয়সী ফার্স্ট লেডি মিশেলের। এখন সেরে ওঠার জন্য আরোপিত ‘বিধিগুলো মেনে চলবেন’ তিনি।

এর আগে গত ৭ জুলাই করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো। ৬৫ বছর বয়সী বলসোনারো এই সময়ে ব্রাসিলিয়ায় প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে প্রায় তিন সপ্তাহ কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। একাধিকবার টেস্ট করেও বারবার পজিটিভ রিপোর্ট আসছিল তার। অবশেষে গত সপ্তাহে ব্রাজিল প্রেসিডেন্টের করোনা ‘নেগেটিভ’ আসে। কাজে ফেরার পাঁচ দিনের মাথাই আক্রান্ত হলেন তাঁর স্ত্রী মিশেল।

প্রেসিডেন্ট করোনায় আক্রান্ত থাকার সময়ে ফার্স্ট লেডি মিশেল ও দুই মেয়ের নমুনা পরীক্ষা করানো হয়। সে পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছিল। কিন্তু শেষমেশ ফার্স্ট লেডি মিশেল করোনা সংক্রমণ এড়াতে পারলেন না।

অনেক দিন ধরেই ব্রাজিল করোনাভাইরাসের অন্যতম হটস্পট। অতি ছোঁয়াচে এই ভাইরাসে এরই মধ্যে দেশটিতে ৯১ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ লাখের বেশি।

অন্যদিকে, করোনা মহামারিকে তেমন গুরুত্ব দেন না বলসোনারো। তার মতে, করোনা ‘হালকা ফ্লু’ জাতীয় অসুখ। এমনকি লকডাউন, মাস্ক পরা এসব বিধিনিষেধেরও ঘোর বিরোধী তিনি। তাকে মাস্ক পরতে বাধ্য করেছে আদালতের নির্দেশনা। এমনকি করোনা চিকিৎসায় বিতর্কিত ওষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের পক্ষেই তার দৃঢ় অবস্থান।