পুলিশকে বুলেট প্রুফ জ্যাকেট পরার নির্দেশ: জঙ্গি হামলার শঙ্কা

৩১ই জুলাই, ২০২০ || ১০:০৬:৪২
7
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:
বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা চালিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে দৃষ্টি আকর্ষণের মাধ্যমে তহবিল সংগ্রহের চেষ্টা চালাচ্ছে নিসিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবি। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কয়েকজন জঙ্গিকে আটক করার পর চাঞ্চল্যকর এসব তথ্য পাওয়া গেছে। একারণে মাঠ পর্যায়ে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের বুলেট প্রুফ জ্যাকেট পরার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সিএমপি কাউন্টার টেররিজম ইউনিট অতিরিক্ত উপ কমিশনার পলাশ কুমার নাথ এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, টাকা পয়সা সব শাহজাহান দিয়েছেন। যাদের টাকা দিয়ে শাহজাহান দলে টানছেন সে বিপথে টাকা ইনকামের কথা চিন্তা করতেই পারেন।

গত দু’মাসে চট্টগ্রামে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের হাতে গ্রেফতার হয়েছে জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির চার সক্রিয় সদস্য। পুলিশের পাশাপাশি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীও দিয়েছে তারা। মূলত পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে আন্তর্জাতিক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চায় জঙ্গি সংগঠনটি। আর এর মাধ্যমে সংগঠনের জন্য তহবিল সংগ্রহ করছে দুবাই প্রবাসী জনৈক শাহজাহান।

পুলিশের অনুসন্ধানে বের হয়ে আসছে, বর্তমানে আবিদ, জহির এবং মোর্শেদ নামে তিন যুবক চট্টগ্রামে নব্য জেএমবিকে সংগঠিত করার চেষ্টা করছে। ইতোমধ্যে তাদের সাথে যুক্ত হয়েছে আরো ২২ জন। চারজন আটক হলেও বাকিরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। এদের সবার বাড়ি জেলার সাতকানিয়া এবং লোহাগাড়া উপজেলায়। পুলিশের উপর হামলা চালাতে তাবলীগের নাম করে সদস্য সংগ্রহের চেষ্টা চলছে তাদের।

সিএমপি কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের উপ কমিশনার হামিদুল আলম বলেন, ‘নব্য জেএমবিকে সংগঠিত করার যারা চেষ্টা চালিয়েছে সবাইকে গ্রেফতার করতে আমরা তৎপর আছি।’

জঙ্গিদের হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হওয়ায় বেশ কিছু নির্দেশনা জারি করেছে পুলিশ প্রশাসন। মাঠ পর্যায়ে দায়িত্ব পালনরত পুলিশ সদস্যদের বুলেট প্রুফ জ্যাকেট পরার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সে সাথে সবগুলো পুলিশের স্থাপনার নিরাপত্তা বাড়াতেও বলা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নব্য জেএমবি সদস্যরা স্বীকার করেছে, দেশীয় প্রযুক্তি ব্যবহার করে তারা রিমোট নিয়ন্ত্রিত বোমা বানাচ্ছে। এমন একটি বোমা ব্যবহার করা হয়েছিলো গত ২৮ ফেব্রুয়ারি রাতে নগরীর দু’নম্বর গেইট পুলিশ বক্সের হামলায়