ঈদ-বন্যা ঘিরে করোনা সংক্রমণের হার বাড়তে পারে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

৩০ই জুলাই, ২০২০ || ০৩:০২:৩২
9
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
পবিত্র ঈদুল আজহা এবং বন্যাকে ঘিরে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণের হার বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের আওতাধীন দফতর ও সংস্থার মধ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তিপত্র (এপিএ) স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ আশঙ্কার কথা জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের বিস্তার রোধে বেশকিছু স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বলা হয়েছে। কিন্তু আসন্ন ঈদকে কেন্দ্র করে কোরবানির পশুর হাটে ও ঈদযাত্রায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাটা ব্যাহত হতে পারে। এতে করে করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, বন্যার কারণে অনেক এলাকায় একসঙ্গে এক জায়গায় অনেক মানুষকে আশ্রয় নিতে হচ্ছে। এতে করেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাটা ব্যাহত হতে পারে। এই দুই কারণে করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ঈদে আমরা বাড়িতে প্রিয়জনের কাছে যাব। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি না মনে গেলে প্রিয়জনকে তো সংক্রমণ করে ফেলব।

তিনি বলেন, আমি খবর নিয়ে দেখেছি, বন্যার কারণে অনেক এলাকায় একসঙ্গে এক জায়গায় অনেক মানুষকে আশ্রয় নিতে হচ্ছে। এতে করেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাটা ব্যাহত হতে পারে।

ঈদযাত্রা ও পশুর হাট নিয়ে মন্ত্রণালয়ের পরামশর্গুলো অনেক ক্ষেত্রেই মানা হচ্ছে বলে দাবি করেন মন্ত্রী। তবে লক্ষণ প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে বাসা থেকে অনেকেই টেলিমেডিসিন সেবা নিয়ে সুস্থ হচ্ছেন বলে পরীক্ষার হার কমে গেছে বলে মনে করেন তিনি।

বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি অনুযায়ী প্রতিটি দফতর-সংস্থাকে লক্ষ্য অজর্ন করতে তাগাদা দেন মন্ত্রী।