ভারতের বিমানবাহিনীতে যুক্ত হচ্ছে ৬ রাফাল যুদ্ধবিমান

৩০ই জুন, ২০২০ || ০৯:০৮:৫৪
13
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক:
লাদাখ সীমান্তে ভারত-চীন সংঘাতের মধ্যেই প্রথম রাফাল যুদ্ধবিমান আসতে চলেছে ভারতে। দেশটির সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, জুলাই মাসের শেষে পূর্ণ অস্ত্রসম্ভার-সহ ছ’টি রাফাল বিমান ভারতীয় বিমানবাহিনীর হাতে আসবে। সেগুলো হরিয়ানার অম্বালা বিমানবাহিনী ঘাঁটির ‘গোল্ডেন অ্যারো (১৭ নম্বর) স্কোয়াড্রন’-এ অন্তর্ভুক্ত হবে। দ্রুতই (আগস্ট মাসের শুরুতেই) পুরোপুরি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে ভারতীয় বিমানবাহিনীর ওই রাফাল বহর।

প্রকাশিত খবরে দাবি করা হয়েছে, আগামী ২৭ জুলাই ছ’টি রাফাল অম্বালায় পৌঁছবে। দক্ষিণ ফ্রান্সের ইস্টার কমিউন থেকে সেগুলো উড়িয়ে আনবেন ভারতীয় বিমানবাহিনীর পাইলটেরা। মাঝে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবির আফ ধাফরা এয়ারবেসে হবে সাময়িক যাত্রাবিরতি। প্রকাশিত খবরে দাবি, অত্যাধুনিক ‘এয়ার টু এয়ার’ ক্ষেপণাস্ত্র ম্যাটিওয় এবং ‘এয়ার লঞ্চড ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র স্ক্যাল্প’-সহ ফ্রান্স থেকে উড়ে আসবে ছ’টি রাফাল। ফলে তাদের যুদ্ধ-প্রস্তুতির জন্য বেশি সময় লাগবে না।

ইউপিএ জমানায় ফ্রান্সের দাসো অ্যাভিয়েশনের সঙ্গে ১২৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার বিষয়ে চুক্তি হয়েছিল। কিন্তু নরেন্দ্র মোদীর সরকারের আমলে ২০১৫ সালে সম্পাদিত নতুন চুক্তি অনুযায়ী ফ্রান্স থেকে ৩৬টি রাফাল কিনবে ভারত। গত ৮ অক্টোবর ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের ফ্রান্স সফরের সময় দক্ষিণ ফ্রান্সে দাসো কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতের হাতে প্রথম রাফাল যুদ্ধবিমান হস্তান্তর করেছিল।

ভারতীয় বিমানবাহিনীর ফাইটার পাইলটদের একটি দল ইতিমধ্যেই ফ্রান্সে গিয়ে রাফাল যুদ্ববিমানের প্রশিক্ষণ নিয়েছে। বিমানবাহিনীর পরিকল্পনা রাফালের দু’টি স্কোয়াড্রন গড়া হবে। পশ্চিম সেক্টরের স্কোয়াড্রনটি থাকবে অম্বালায়। পূর্ব সেক্টরের স্কোয়াড্রনটি আলিপুরদুয়ার জেলার হাসিমারা বিমানবাহিনী ঘাঁটিতে। লাদাখে চীন সেনার অনুপ্রবেশ এবং জম্মু ও কাশ্মীরের সাম্প্রতিক উত্তেজনার প্রেক্ষিতে ভারতীয় বিমানবাহিনীর রাফাল প্রাপ্তি নতুন মাত্রা আনবে বলে মনে করছেন প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের অনেকে।
সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।