নড়াইলে দুই পক্ষের ভয়াবহ সংঘর্ষে চাচা-ভাইপোসহ ৩ জন নিহত, আহত ১৫

১০ই জুন, ২০২০ || ০৮:৩৬:৫৮
13
Print Friendly, PDF & Email

নড়াইল থেকে করসপন্ডেন্ট:
নড়াইলে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গোষ্ঠিগত দ্বন্দ্বের জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে চাচা-ভাইপোসহ ৩ জন নিহত ও অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। লোহাগড়া উপজেলার গোন্ডব গ্রামে বুধবার (১০ জুন) বেলা ৩ টার দিকে এ সংঘর্ষে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। আহতদের নড়াইল লোহাগড়ার বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ ৭ জনকে আটক করেছে।

পুলিশ জানায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে লোহাগড়া উপজেলার গোন্ডব গ্রামের বিপ্লব শেখের পক্ষ ও মিরাজ মোল্লা পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলে আসছিল। যার ফলে বিভিন্ন সময় দু’পক্ষে সহিংসতায় বহু রক্তপাতের ঘটনা ঘটে। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার বিভিন্ন প্রকার দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র্র নিয়ে দু’পক্ষ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে না দিতেই উভয়পক্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়।

গুরুত্বর আহতদের উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে নেয়া হলে মিরাজ মোল্লার পক্ষের মোক্তার মোল্লা ও আমিনুর রহমান হাবিব নামে চাচা-ভাইপোকে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এছাড়া রফিকুল মোল্লা নামে মুমূর্ষু আর একজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উচ্চতর চিকিৎসার জন্য বিকালে খুলনা নেয়ার পথে তিনিও মারা যান। আহত অন্যান্যদের নড়াইল সদর ও লোহাগড়া উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ঘটনার পর পুলিশ সুপারসহ ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হলেও উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ঘটনায় ৭ জনকে পুলিশ আটক করেছে।