মোহাম্মদপুরের কাউন্সিলর সলু পুত্রের লাম্পট্য, তরুণী ধর্ষণ ও গর্ভপাতের দায়ে মামলা

৯ই জুন, ২০২০ || ০২:৩৯:৩৮
228
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
ঢাকা উত্তর সিটির মোহাম্মদপুর এলাকার ২৯ নং ওয়ার্ডের আলোচিত কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগের সভাপতি সলিমুল্লাহ সলুর গুণধর পুত্র আরিফ মোহাম্মদের (৩৫) বিরুদ্ধে এক তরুণীকে (২৩) ধর্ষণ ও গর্ভপাতের দায়ে মামলা হয়েছে। গতকাল সোমবার বেলা ৩টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় মোহাম্মদপুর নির্যাতিতা নিজেই বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

এদিকে, নানা ঘটনায় আলোচিত সলুর লম্পট পুত্রের ওই তরুণী ধর্ষণ ও গর্ভপাতের এ ঘটনাটি এলাকায় দারুণ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

মোহাম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আব্দুল লতিফ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, কোন কাউন্সিলরের ছেলে হিসেবে নয়, সে একজন অপরাধী হিসেবে আসামির বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়েছে। পুলিশ মোহাম্মদপুরের ৪/২০ মাদ্রাসা রোড, আজিজ মহল্লার বাসিন্দা আসামি আরিফ মোহাম্মদকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে। কিন্ত আসামি আরিফ পলাতক রয়েছে।

মোহাম্মদপুর থানায় দায়েরকৃত মামলা নং-১১, তারিখ: ০৮/০৬/২০২০। ধারা- নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী ২০০৩) এর ৯(এ) তৎসহ ৩১৩ পেনালকোড মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে বলেও জানান মোহাম্মদপুর থানার ওসি মো: আব্দুল লতিফ।

এজাহার সুত্রে জানা গেছে, রাজধানীর ভাটারা থানার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার জি ব্লকের বাসিন্দা (২৩) ওই তরুণীকে কাউন্সিলর ও নানা ঘটনায় আলোচিত স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সলিমুল্লাহ সলুর লম্পট পুত্র আরিফ মোহাম্মদের লালসার শিকার হয়। বিয়ে করার মিথ্যা আশ্বাসে আরিফ একাধিকবার তরুণীকে ধর্ষণ করে। কুড়িগ্রাম জেলার অধিবাসী তরুণীটি প্রেগনেন্ট হয়ে পড়লে সম্প্রতি আরিফ তাকে চাপ দিয়ে গর্ভপাত ঘটায়। আরিফ তরুণী ও তার পরিবারের প্রাণনাশসহ যে কোন ক্ষতিকরার হুমকিও দিয়ে আসছে।

এদিকে, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২৯ নং ওয়ার্ড থেকে শেখ হাসিনার মনোনীত আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ঘুড়ি মার্কা প্রতীকে নির্বাচন করে কাউন্সিলর হন সলিমুল্লাহ সলু। নানান ঘটনায় আলোচিত সলুর লম্পট পুত্রের তরুণী ধর্ষণ ও গর্ভপাতের এ ঘটনাটি এলাকায় দারুণ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

অন্যদিকে, অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে আসামির পিতা ২৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সলিমুল্লাহ সলুর মুঠোফোনে একাধিবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।