করোনা: ভারতে ৪ দিনে ৯০০ মৃত্যু!

৫ই জুন, ২০২০ || ০৮:৫৬:০১
7
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
ভারতে হু হু করে বাড়ছে মহামারি করোনার সংক্রমণ। সরকারিভাবে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার ৪৮ দিন পর দেশটিতে মৃত্যু হাজার ছাড়ায়। আর গত চারদিনে দেশটিতে মারা গেছে ৯০০ জনের বেশি কোভিড-১৯ রোগী। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৬ হাজার ছাড়িয়েছে।

গত ২৬ এপ্রিল সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা ২৫ হাজার ছুঁয়েছিল। এরপর মাত্র ছয় সপ্তাহের মধ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছে যায় ২ লাখ ২৭ হাজারের কাছাকাছি। শুক্রবার সকালে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ২ লাখ ২৬ হাজার ৭৭০ জন।

উল্লিখিত পরিসংখ্যান বলে দিচ্ছে ভারতে কত দ্রুত করোনার প্রকোপ বাড়ছে। প্রায় প্রতিদিনই শনাক্ত রোগী এবং প্রাণহানির পূর্বের দিনের রেকর্ড ভেঙ্গে যাচ্ছে। দেশটিতে যে হারে করোনার সংক্রমণ শুরু হয়েছে তাতে করে আগামী দশ দিনে আরও লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত হবে বলে আশঙ্কা।

ভারতে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ১২ মার্চ। এরপর ৪৮ দিনের মাথায় অর্থাৎ ২৯ এপ্রিল মৃতের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৮ জন। এরপর ১১ দিনের মধ্যেই তা ২ হাজার ছাড়ায়। বাকি আটদিনে সংখ্যাটা হয় ৩ হাজারের বেশি। এর এক সপ্তাহ পর তা ছিল ৪ হাজার।

পরের ছয় দিনে ভারতে করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা পাঁচ হাজারের গণ্ডি পেরিয়ে যায়। গতকাল ৪ জুন তা ছিল ৬ হাজারের বেশি। আজ শুক্রবার সকালে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, প্রাদুর্ভাব শুরুর পর এখন পর্যন্ত দেশজুড়ে করোনায় মৃত্যু হয়েছে মোট ৬ হাজার ৩৪৮ জনের।

ভারতে সংক্রমণ ১ লাখ হতে সময় নিয়েছিল ১১০ দিন। পরবর্তী ১ লাখ রোগী শনাক্ত হয় মাত্র ১৫ দিনে। কিন্তু ভাইরাসটির সংক্রমণ ছড়ানোর যে গতি তাতে করে ১০ দিনের মধ্যে পরবর্তী ১ লাখ মানুষ যে আক্রান্ত হতে যাচ্ছে তা প্রায় নিশ্চিত। প্রতিদিনই দেশটিতে আক্রান্ত হচ্ছে প্রায় দশ হাজার মানুষ।

ভারতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে আশঙ্কাজনক হারে। আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত ও মৃত্যু প্রতিদিনই আগের রেকর্ড ভাঙছে। কিন্তু এর মধ্যেই দেশটি ফের সচল হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। আগামী ৮ জুন সোমবার থেকে ভারতে খুলছে সব ধরনের অফিস, শপিংমল, উপাসনালয় এবং রেস্তোরাঁ।