কুষ্টিয়ায় একদিনেই ১৬ জনের করোনা শনাক্ত

৩ই জুন, ২০২০ || ১০:৫৬:২৬
10
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, কুষ্টিয়া:
কুষ্টিয়ায় প্রথমবারে মতো একইদিনেই সর্বোচ্চ ১৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

বুধবার (৩ জুন) রাতে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসকে কার্যালয় ও সিভিল সার্জন কার্যালয় জেলায় নতুন করে আরও ১৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জেলা প্রশাসক ও সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে জানা যায়, কুষ্টিয়ার মেডিকেল কলেজের প্রদত্ত তথ্য মতে পিসিআর ল্যাবে বুধবার (৩ জুন) মোট ১৭৬টি নমুনা পরীক্ষা রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। (কুষ্টিয়া ৮৬, চুয়াডাঙ্গা ৫২, মেহেরপুর ৩৮) এর মধ্যে তিন জেলায় ১৯ জনের করোনা পজিটিভ ফল এসেছে। বাঁকি ১৫৭টি নমুনা পরীক্ষার ফল নেগিটিভ। এদের মধ্যে কুষ্টিয়া জেলায় ১৬ জন ও চুয়াডাঙ্গা জেলায় ৩ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মেহেরপুর জেলায় কোনো করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি।

কুষ্টিয়ার সদর উপজেলায় ১১ জন, ভেড়ামারা উপজেলায় ৪ জন, দৌলতপুর উপজেলায় ১ জনসহ মোট ১৬ জন করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছেন।

সদর উপজেলায় করোনা শনাক্ত হওয়া ১১ জনের মধ্যে ৮ জনের বাড়ি বরইটুপি, উজানগ্রাম বাঁকি করোনা শনাক্ত রোগীরা হলেন- হরিপুরে ১ জন পৌর এলাকার মোল্লাতেঘড়িয়ায় ১ জন ও কোর্টপাড়া এলাকায় ১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

ভেড়ামারা উপজেলায় করোনা শনাক্ত হওয়া দু’জনের ১ জনের বাড়ি বারোদাগ, অপরজনের বাড়ি ষোলদাগ।

দৌলতপুর উপজেলায় করোনা শনাক্ত হওয়া ১ জনের বাড়ি প্রাগপুরের মহিষকুন্ডি।

কুষ্টিয়ায় করোনা শনাক্ত হওয়া ১৬ জনের মধ্যে ১০ জন পুরুষ ও ৬ জন নারী।

এই নিয়ে এখন পর্যন্ত বহিরাগত বাদে জেলায় ৯০ জন করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হলো। তবে কুষ্টিয়ায় করোনা আক্রান্ত সবাই এখন পর্যন্ত সুস্থ রয়েছেন। জেলায় করোনা শনাক্ত পুরুষ রোগী ৬৮ জন ও নারী রোগীর সংখ্যা ২২ জন।

বহিরাগত বাদে জেলায় মোট ৯০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। উপজেলা ভিত্তিক করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন- দৌলতপুরে ২২ জন, ভেড়ামারায় ১৫ জন, মিরপুরে ১০ জন, সদরে ২২ জন, কুমারখালীতে ১৬ জন এবং খোকসা উপজেলায় ৫ জন।

এর মধ্যে সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন ২৮ জন। জেলার উপজেলা ভিত্তিক মোট সুস্থতার ছাড়পত্র পেয়েছেন ২৯ জন।

এছাড়াও বহিরাগত করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন ২ জন। বহিরাগত বাদে ২৭ জন সুস্থতার ছাড়পত্র পেয়েছেন- দৌলতপুরে ১০ জন, ভেড়ামারায় ২ জন, মিরপুরে ৪ জন, সদরে ৪ জন, কুমারখালীতে ৬ জন এবং খোকসা উপজেলায় ১ জন।

বর্তমানে কুষ্টিয়ায় হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন ৬১ জন করোনা রোগী। এছাড়াও বর্তমানে জেলায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২ জন রোগী।