পাটুরিয়া-ঢাকা ও শিমুলিয়া-ঢাকা রুটে গণপরিবহন চালু, কমেছে যাত্রীদের চাপ

১ই জুন, ২০২০ || ১২:৪৫:৩৮
10
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া এবং মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট থেকে গণপরিবহন চালু হয়েছে। দীর্ঘ ৬৭ দিন পর সোমবার (১ জুন) সকাল থেকে বাস সার্ভিস চালু হলেও যাত্রীদের চাপ কম রয়েছে। ১৪টি পরিবহনের প্রায় ৫শ’ বাস শিমুলিয়া-ঢাকা রুটে চলাচল করে। প্রায় একই পরিস্থিতি পাটুরিয়া-ঢাকা রুটে। সব বাসই সচল রাখা হয়েছে।

এখানকার বেশিরভাগ বাসই ৫২ সিটের। এখন ২৬ জন করে যাত্রী বহন করা হচ্ছে।

শিমুলিয়া ঘাটের ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর হিলাল উদ্দিন জানান, গণপরিবহন চালু হলেও কঠোরভাবে সরকারের নির্দেশনা পালন করা হচ্ছে। তবে এখানে যাত্রীর চাপ অপেক্ষাকৃত কম।

তিনি জানান, রোববার থেকেই অফিস খোলা ছিল, ঈদের পরের চাপ কমে গেছে। এসব কারণেই প্রয়োজন ছাড়া লোকজন বের হচ্ছে কম।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে ১৪টি ফেরিতে করে স্বাভাবিক পারাপার চলছে। ঘাটে ঘাটে যানবাহন তেমন অপেক্ষায় নেই। অল্প সময়ের মধ্যেই ফেরিতে উঠতে পারছে। ৮৭টি লঞ্চ এবং সাড়ে ৪শ’ স্পিডবোটেও যাত্রী পারাপার চলছে। তাই ফেরিতে আগের মতো গাড়িবিহীন যাত্রীর চাপ নেই। ছোট আকারের যানবাহন- কার, মাইক্রো, পিকআপ এবং মোটরবাইক বেশি পারাপার হচ্ছে। এছাড়াও বাস ও পণ্যবাহী ট্রাক, কাভার্ডভ্যানও পারাপার হচ্ছে। এর মধ্যে রাজধানীগামী যান ও যাত্রী বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের এজিএম সফিকুল ইসলাম জানান, গাড়ির চাপ তেমন নেই। গাড়ির জন্য ফেরির অপেক্ষা করতে হচ্ছে। কারণ ফেরি তো খালি ছাড়া যাচ্ছে না। তবে দীর্ঘদিন পর নাইট কোচগুলোও সোমবার থেকে পারাপার হবে।

এদিকে, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে গণপরিবহন চলাচলের বিষয়ে সোমবার বেলা ১১টায় শিমুলিয়া পুলিশ কন্ট্রোল রুমে সভা করেছে পুলিশ। এতে পুলিশ কর্মকর্তা ছাড়াও বাস, স্পিডবোট ও লঞ্চ মালিক সমিতি এবং ইজারাদাররা এতে অংশ নিয়েছেন।