তথ্যপ্রযুক্তি আইনে এবার আইনজীবী ইমতিয়াজ মাহমুদ গ্রেফতার

24
Print Friendly, PDF & Email

বিশেষ প্রতিবেদকঃ
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ে ফেসবুকে উস্কানিমূলক মন্তব্যের অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭-ধারায় করা মামলায় এবার গ্রেফতার হয়েছেন আইনজীবী ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ইমতিয়াজ মাহমুদ। বুধবার (১৫ মে) সকালে বনানী থেকে সুপ্রিম কোর্টের এই আইনজীবীকে গ্রেফতার করে বনানী থানা পুলিশ।

বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরমান আলী বলেন, ২০১৭ সালে ৫৭ ধারায় খাগড়াছড়িতে দায়ের করা একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ ইমতিয়াজ মাহমুদকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ইমতিয়াজ মাহমুদের ভাই পারভেজ মাহমুদ দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, শফিকুল ইসলাম নামে খাগড়াছড়ির এক বাসিন্দা ইমতিয়াজ মাহমুদের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলাটি দায়ের করেন। পরে মামলায় পুলিশি প্রতিবেদন দাখিল পর্যন্ত তিনি সুপ্রিম কোর্ট থেকে জামিন পান। কিন্তু সেই মামলাতেই তাকে আটক করা হয়েছে কি না আমরা এখনো জানি না।

খাগড়াছড়ির ঐ মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়, ‘সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইমতিয়াজ মাহমুদ সম্প্রতি তার ফেসবুকে আইডিতে পাহাড় ইস্যুতে নানান মন্তব্য করেছেন। এর মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসকারীদের মধ্যে সাম্প্রদায়িক উস্কানি ছড়ানো হয়েছে। বাঙালি জাতিকে হেয় করে সেটলার আখ্যায়িত করা হয়েছে।”

আইনজীবী ইমতিয়াজের পোস্টগুলো ‘পাহাড়ে দাঙ্গা’ লাগানোর জন্য পরিকল্পিত বলেও অভিযোগ করেন বাদী শফিকুল।

এদিকে, পারভেজ মাহমুদ অভিযোগ করে বলেন, আমরা এখন তার (ইমতিয়াজ মাহমুদ) সঙ্গে কথা বলতে চাচ্ছি। কিন্তু পুলিশ আমাদেরকে দেখাই করতে দিচ্ছে না।

ইমতিয়াজ মাহমুদের আইনজীবী মাহবুব ইসলাম জানান, খাগড়াছড়ির মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন নেওয়া ছিল। নিশ্চয় কোথাও ভুল হতে পারে।

৫৭ ধারাকে কালো আইন আখ্যা দিয়ে এই আইন বাতিল এবং কবি হেনরী স্বপন ও লেখক ইমতিয়াজ মাহমুদকে দ্রুত মুক্তির দাবিতে বুধবার বিকেলে শাহবাগে বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচি পালন করার ঘোষণা দিয়েছে লেখক ও মুক্তমনা সংগঠনগুলো।