নিজের ওপর চলা নির্যাতন নিয়ে মুখ খুললেন ‘ভাইরাল’ দীপিকা

১৩ই মে, ২০১৯ || ০৫:২৪:৫৩
13
Print Friendly, PDF & Email

ক্রিকেট আর বিনোদনের ককটেল মিলিয়েই যেন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল); যেখানে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে ক্রিকেটাররা যেমন নজর কাড়েন, তেমনি গ্যালারিতে বসে কোনো কোনো দর্শকও রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যান। এমনটাই ঘটেছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ম্যাচে।

সেদিন এক অচেনা লাস্যময়ী তরুণীকে আরসিবির ইনিংসের প্রতিটি চার ও ছক্কার সময় প্রবল উচ্ছ্বাসে ভেসে যেতে দেখা যায়। ওই দিনের পর ইন্টারনেটে দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যান দীপিকা ঘোষ নামের এই তরুণী। একদিনের মধ্যে ইনস্টাগ্রামে তার ফলোয়ার বেড়ে যায় ১৫ হাজারেরও বেশি। এক ম্যাচ দিয়েই পরিচিতি পেয়ে যাওয়া দীপিকা অবশেষে মুখ খুলেছেন। জানিয়েছেন ওই দিন মানুষের ভালোবাসা পেলেও এখন তার প্রতিটা দিন কাটছে যন্ত্রণার মধ্য দিয়ে।

কলকাতার মেয়ে হলেও বেঙ্গালুরুতে বাস করা দীপিকার নাম হয়ে যায় আরসিবি গার্ল। মানুষের এমন ভালোবাসা পেয়ে আপ্লুত তিনি। কৃতজ্ঞতাও জানিয়েছেন দীপিকা। কিন্তু ওই দিনের পর থেকে তার ওপর অত্যাচার চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি। ব্যাপারটা তার কাছে ট্রমার মতো মনে হচ্ছে। 

রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যাওয়া দীপিকা লিখেছেন, ‘আমি কোনো সেলেব্রিটি নই, ম্যাচ দেখতে যাওয়া একটা সাধারণ মেয়ে। এই রকম মনোযোগ পাওয়ার মতো আমি কিছুই করিনি। আর এত মনোযোগ আমি চাইও না। আমি অবাক হয়ে গেছি, সবাই আমার সম্পর্কে এখন সবকিছু জানে।’

এতটুুকু পর্যন্ত কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু এরপরই নিজের ওপর চলা নির্যাতনের কথা জানান তিনি, ‘আমার ব্যক্তিগত জীবন যেন এক মুহূর্তে সবার সামনে এসে গেল। অনলাইনে আমার সম্পর্কে অনেক আজেবাজে কথা বলা হচ্ছে। অনেক মহিলা আমাকে বাজে ভাষায় আক্রমণ করছেন। আমি সবার কাছে আবেদন করছি, এত সহজে কাউকে বিচার করবেন না। আমি আরসিবি গার্ল অবশ্যই, কিন্তু তার বাইরেও আমি অনেক কিছু।’