প্রথমবারের মতো পর্যটন ভিসা চালু করেছে সৌদি আরব

16

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
প্রথমবারের মতো পর্যটন ভিসা দিতে যাচ্ছে সৌদি আরব। শুধু তেলনির্ভর অর্থনীতির ওপর ভরসা না করে এক্ষেত্রে বহুমুখী আয়ের উৎস সৃষ্টির অংশ হিসেবেই সৌদি আরব তাদের দেশের কট্টর রক্ষণশীল অবস্থান থেকে বেরিয়ে এসে পর্যটকদের এ সুযোগ দিতে যাচ্ছে।

শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) এএফপি’র বরাত দিয়ে খবরটি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা-বাসস।

তেল পরবর্তী যুগের জন্য বৃহত্তম আরব অর্থনীতির প্রস্তুতির ব্যাপারে যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের ভিশন ২০৩০ সংস্কার কর্মসূচির প্রধান পদক্ষেপগুলোর অন্যতম হচ্ছে পর্যটন খাত চালু করে এর বিকাশ ঘটানো।

সৌদি আরবের তেল স্থাপনায় ভয়াবহ হামলার মাত্র দুই সপ্তাহ পর পর্যটক ভিসার ব্যাপারে এমন ঘোষণা দেয়া হলো। দেশটির তেল স্থাপনায় হামলার কারণে তাদের তেল উৎপাদন হ্রাস পায় এবং এর প্রভাবে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়ে যায়। ওয়াশিংটন এ হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করেছে।

পর্যটন প্রধান আহমেদ আল-খতীব এক বিবৃতিতে বলনে, আন্তর্জাতিক পর্যটকদের সৌদি আরবের ভিসা চালু করা হচ্ছে আমাদের দেশের জন্য একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে ইউনেস্কো স্বীকৃত বিশ্ব ঐতিহ্যের পাঁচটি স্থানের পাশাপাশি সমৃদ্ধ স্থানীয় সংস্কৃতি ও মনোমুগ্ধকর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য রয়েছে। পর্যটকরা এসব সম্পদ দেখে বিস্মিত হবেন।

খতীবের বরাত দিয়ে ব্লুমবার্গ নিউজ জানায়, সৌদি আরব শুক্রবার থেকে অনলাইনে পর্যটন ভিসার জন্য বিশ্বের ৪৯টি দেশের নাগরিকদের আবেদন গ্রহণ শুরু করবে।