প্যারোলে মুক্তি পেয়েছেন গিয়াস উদ্দিন আল মামুন

23

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
মায়ের জানাজায় অংশ নেওয়ার জন্য কারাগার থেকে চার ঘণ্টার জন্য প্যারলে মুক্তি পেয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ব্যবসায়িক সহযোগী গিয়াসউদ্দিন আল মামুন।

মামুনের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) তাকে প্যারলে মুক্তি দেয় কারা কর্তৃপক্ষ। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত প্যারলে মুক্ত থাকেন গিয়াস উদ্দিন আল মামুন।

১২ বছর ধরে কারাগারে থাকা মামুন প্যারলে মুক্ত হয়ে রাজধানীর শের-ই বাংলা নগরে শুক্রাবাদের বাসায় যান। শুক্রাবাদ জামে মসজিদে তার মায়ের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

গিয়াস আল মামুনের প্যারোলে মুক্তি চেয়ে আবেদনঃ
এর আগে গতকাল বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর এ আবেদনটি করেন মামুনের বড় ভাই জালাল উদ্দিন রুমি।

প্যারোল আবেদনে বলা হয়, গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের মা মিসেস হালিমা খাতুন ২৫ সেপ্টেম্বর, বুধবার ভোর ৪টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর। এর আগে গত ১০ আগস্ট তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আবেদনে আরও বলা হয়, ২০০৭ সালের ৩১ জানুয়ারি মামুন যৌথবাহিনীর হাতে গ্রেফতার হন। বর্তমানে তিনি সকল মামলায় জামিনে থাকলেও তার বিরুদ্ধে পিডব্লিউ ইস্যু থাকায় তার জামিন কার্যকর হয়নি। তাই মাকে শেষ বারের মতো দেখতে এবং তার জানাজা ও দাফনে অংশ নিতে পরিবারের পক্ষ থেকে গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের প্যারোলে মুক্তি চেয়ে আবেদন করা হয়েছে।