অভিযান অব্যাহত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

15

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জুয়া, দুর্নীতি, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে চলমান অভিযান চালিয়ে যেতে বলেছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের বলেছেন, আমি অনুপস্থিত থাকলেও এই অভিযান যেন চলমান থাকে। অপরাধ অপকর্মের বিরুদ্ধে দুর্বৃত্তায়ন দুর্নীতির চক্র ভেঙে দিতে হবে। এটা স্পষ্ট উচ্চারণ করেছেন শেখ হাসিনা। এখানে কারো সঙ্গে কোনো আপোষ বা কাউকে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এ অভিযান আমরা গুরুত্বের সঙ্গে শুরু করেছি। প্রধানমন্ত্রী বিদেশে যাওয়ার সময় পরিষ্কার বলেছেন, দুর্নীতির গডফাদার যেই হোক, আর অপরাধী যত বড়ই হোক-যারা মাদকের সঙ্গে জড়িত, দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি যারাই করবেন তাদের পরিচয় নয়, তাদের অপরাধ গুরুত্ব দিতে হবে। তারা সরকারি দলের লোক হলেও ছাড় দেওয়া হবে না। এসব ব্যাপারে যেন কোনো আপোষ না হয়।

কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ যাওয়ার সময় বিমানবন্দরে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সবাই উপস্থিত ছিলেন। তাদের সবার সামনে তিনি এসব কথা বলেছেন। সে সময় প্রধানমন্ত্রী সবার উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যে, কোনভাবেই যেন চলমান কার্যক্রম বন্ধ না হয়।

এক প্রশ্নের জবাবে সরকারের এই মন্ত্রী বলেন, এটা মাত্র শুরু হয়েছে, দেখুন এটা কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়। জেলা পর্যায়েও চলছে। সবার মাঝে আতঙ্ক শুরু হয়ে গেছে। অপরাধী যেই হোক-ছাড় পাবেন না।

যতদিন দুর্নীতি ও মাদক থাকবে ততদিন অভিযান চলবে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭৪তম অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের উদ্দেশে শুক্রবার ঢাকা ত্যাগ করেন।

টানা ১১ দিনের এই সফরে প্রধানমন্ত্রী ২৭ সেপ্টেম্বর ইউএনজিএ’র ৭৪তম বার্ষিক অধিবেশনে ভাষণ দেবেন।