পাঠাও চালক মিলন হত্যার মূল আসামি গ্রেফতার

15

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
রাজধানীর মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের শাহাজানপুর থানা অংশে ছুরিকাঘাতে রাইড শেয়ারিং কোম্পানি পাঠাওয়ের চালক মিলনকে গলাকেটে হত্যা করে তার মোটর সাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তার নাম নুরুজ্জামান অপু।

রবিবার রাতে রাজধানীর গুলবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানানো হয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া ও পাবলিক রিলেশন্স বিভাগ থেকে।

পুলিশ জানায়, অপু হত্যার কথা স্বীকার করেছে। ঘটনার বিবরণে তিনি জানিয়েছেন, ওইদিন গুলিস্তান যাওয়ার জন্য ৫০ টাকা ভাড়ায় তিনি মালিবাগ আবুল হোটেল থেকে মিলনের মোটরসাইকেলে ওঠেন। ফ্লাইওভারে ওঠার পর পদ্মা ডায়াগনস্টিকের সামনে এসে সিগারেট জ্বালানোর কথা বলে মিলনকে বাইকের গতি কমাতে বলেন তিনি। মিলন গতি কমালে কাছে থাকা অ্যান্টি কাটার দিয়ে মিলনের গলায় টান দেন অপু।

অপু মাদকাসক্ত ও পেশাদার মোটরসাইকেল ছিনতাইকারী বলেও জানিয়েছে পুলিশ। সংবাদ সম্মেলনে তার বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানানো হবে।

গত ২৫ আগস্ট দিনগত রাত আড়াইটার দিকে ফ্লাইওভারের মধ্যবর্তী স্থান (পদ্মা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কাছে) থেকে মিলনকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়।

পরে সেখান থেকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (২৬ আগস্ট) ভোরে তার মৃত্যু হয়।

সে সময় পুলিশ জানায়, মিলনকে ফ্লাইওভার থেকে উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তার গলায় সাতটি সেলাই দেন। এরপর চিকিৎসকদের নির্দেশে তাকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে নিয়ে হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।