মাথায় আঘাত পাওয়ার পর প্রথমবারের মতো মাঠে নামতে যাচ্ছেন স্মিথ

10

স্পোর্টস ডেস্ক রিপোর্টঃ
ক্যারিবীয় বংশোদ্ভূত ইংলিশ পেসার জোফরা আর্চারের প্রায় ৯৩ মাইল গতির ডেলিভারি সরাসরি আঘাত হানে স্টিভেন স্মিথের ঘাড়ের অরক্ষিত অংশে। সঙ্গে সঙ্গে লুটিয়ে পড়েন মাটিতে, অন্ধকার হয়ে আসতে থাকে পুরো দুনিয়া। সে সময়টায় স্মিথের মাথায় ঘুরছিল ২০১৪ সালে ঘাড়ের ঠিক একই জায়গায় বল লেগে পরপারে চলে যাওয়া ফিলিপ হিউজের কথা।

না, হিউজের মতো করুণ পরিণতি হয়নি স্মিথের। তবে লর্ডস টেস্টের প্রথম ইনিংসের পর থেকে আর মাঠে নামতে পারেননি সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক। তার অনুপস্থিতিতে মার্নাস লাবুসচাগনে দারুণ ব্যাটিং করেছেন হেডিংলি টেস্টে। কিন্তু বেন স্টোকসের বীরত্বগাথায় ১ উইকেটে পরাজিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। সিরিজে চলে এসেছে ১-১ সমতা।

তবে চতুর্থ টেস্টে হয়তো আর স্মিথকে বাইরে রেখে নামতে হবে সফরকারীদের। কেননা মাথায় আঘাত পাওয়ার পর প্রথমবারের মতো মাঠে নামতে যাচ্ছেন স্মিথ। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে চতুর্থ ম্যাচে মাঠে নামবে দুই দল। সে ম্যাচের আগে আজ (বৃহস্পতিবার) কাউন্টি দল ডার্বিশায়ারের বিপক্ষে একটি তিন দিনের ট্যুর ম্যাচ খেলবে অস্ট্রেলিয়া।

আর এ ম্যাচের একাদশে নেয়া হয়েছে স্মিথকেও। সাধারণত ট্যুর ম্যাচগুলোতে ১৩ থেকে ১৫ জনের দল নামানো হলেও, ডার্বিশায়ারের বিপক্ষে ১১ জনের স্থায়ী দল নিয়েই খেলবে অস্ট্রেলিয়া। যেখানে স্মিথদের অধিনায়কত্ব করবেন টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান উসমান খাজা। এছাড়া অধিনায়ক টিম পেইনের বদলে কিপিং গ্লাভস হাতে নেবেন অ্যালেক্স ক্যারে।

ট্যুর ম্যাচ থেকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে নিয়মিত একাদশের প্রায় সব খেলোয়াড়কেই। অধিনায়ক টিম পেইনসহ এ ম্যাচে থাকছেন না ডেভিড ওয়ার্নার, নাথান লিয়ন, ট্রাভিস হেড, জেমস প্যাটিনসন, জস হ্যাজলউড এবং প্যাট কামিনস। হেডিংলি টেস্টের তিন পেসারকে বাইরে রেখে দুই অভিজ্ঞ তারকা মিচেল স্টার্ক ও পিটার সিডলকে সুযোগ দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া।

এছাড়া ব্যাটিং অর্ডারে স্মিথ-খাজা ছাড়াও থাকছেন মার্কস হ্যারিস, ম্যাথু ওয়েড, মার্নাস লাবুসচাগনে এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফট। অ্যাশেজের স্কোয়াডে জায়গা না পেলেও, অধিনায়ক পেইনকে খানিক বিশ্রাম দেয়ার জন্যই মূলত এ ম্যাচের জন্য ডেকে নেয়া হয়েছে বাঁহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স ক্যারেকে।

ট্যুর ম্যাচের অস্ট্রেলিয়া একাদশ
উসমান খাজা (অধিনায়ক), ক্যামেরন ব্যানক্রফট, অ্যালেক্স ক্যারে, মার্কস হ্যারিস, মার্নাস লাবুসচাগনে, মিচেল মার্শ, মাইকেল নেসার, পিটার সিডল, স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক ও ম্যাথু ওয়েড।