রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ফি কমল

31

রাবি করসপন্ডেন্ট, রাবিঃ
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ফরমের মূল্য কমিয়ে ১২০০ টাকা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এছাড়া সব বিভাগের শিক্ষার্থীরাই একাধিক ইউনিটে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে ভর্তি পরীক্ষা উপ-কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. লায়লা আরজুমান বানু।

অধ্যাপক ড. লায়লা আরজুমান বানু জানান, এ বছরের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২০, ২১ ও ২২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু হবে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর। চলবে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। প্রাথমিক ৫৫ টাকা ফি দিয়ে শিক্ষার্থীদের আবেদন করতে হবে। আর চূড়ান্ত আবেদন শুরু হবে ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে। শেষ হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। ইউনিট প্রতি ১২০০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান জানান, বিজ্ঞান, বাণিজ্য, মানবিক এই তিনটি ইউনিটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে ‘এ’ ইউনিটের অধীনে মানবিক, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ও শিক্ষা এবং গবেষণা ইনস্টিটিউট, চারুকলা অনুষদ, আইনের পরীক্ষা হবে। বি ইউনিটে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ, ব্যাবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট এবং সি ইউনিটের অধীনে বিজ্ঞান, জীব ও ভূবিজ্ঞান, কৃষি অনুষদ ও প্রকৌশল অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে প্রতিটি ইউনিট সকল শিক্ষার্থীর জন্য উন্মুক্ত থাকবে। একাধিক ইউনিটে আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ভর্তির পরীক্ষার ফরমের মূল্য ১৯৮০ টাকা নির্ধারণ করেছিল কর্তৃপক্ষ। একজন শিক্ষার্থী শুধু একটি ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। এরপর ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ওই নিয়ম পরিবর্তনের জন্য আন্দোলনও করেছেন।

পরীক্ষা পদ্ধতিঃ
লিখিত ও এমসিকিউ দুই পদ্ধতিতেই পরীক্ষা নেয়া হবে। ৬০ নম্বরের এমসিকিউ এবং লিখিত ৪০ নম্বর। লিখিত (Short answer Question) ২০টি প্রশ্নে ৪০ নম্বর। এমসিকিউ প্রশ্ন ৬০টি, যার সময় ৫০ মিনিট। লিখিত প্রশ্নের জন্য সময় ৪০ মিনিট। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে ১০টা ৪৫ ও ১২টা থেকে ১টা ৪৫ পর্যন্ত দুই শিফটে পরীক্ষা চলবে।

আবেদনের যোগ্যতাঃ
মানবিকে সর্বনিম্ন ৩ পয়েন্ট করে এসএসসি ও এইচএসসিসহ মোট ৭.০০। বাণিজ্যে ৩.৫০ করে একইভাবে ৭.৫০। বিজ্ঞান ইউনিটে ৩.৫০ করে একইভাবে ৮.০০। এছাড়া ইউনিট প্রতি ৩২ হাজার শিক্ষার্থী পরীক্ষায় বসার সুযোগ পাবেন।