‘জামালপুরের সাবেক ডিসির বিষয়ে তদন্তের পর ব্যবস্থা’

20

স্পেশাল করসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
জামালপুরের সাবেক ডিসি আহমদ কবিরের অফিসের খাস কামরায় সহকর্মীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিওর ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রীপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সোমবার (২৬ আগস্ট) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

জামালপুরের ডিসির ঘটনার তদন্ত প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আমরা প্রক্রিয়া শুরু করেছি, শাস্তি হবে ইনশাআল্লাহ। তবে কেবিনেটে এ বিষয়ে আলোচনা হয়নি।

অতীতে এমন ঘটনা ঘটলেও শাস্তি হয়নি, এবারের ঘটনায় ব্যবস্থা নেওয়া হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, তদন্তে প্রমাণিত না হলে শাস্তি দেওয়া কঠিন। আমরা কমিটি করে দিয়েছি, কমিটি এটি দেখবে। কমিটি নিরপেক্ষভাবেই এটি দেখবে। টেকনিক্যালি কোন ম্যানুপুলেশন থাকলেও যাচাই করবে। সেজন্য কমিটিতে এক্সপার্ট রাখা হয়েছে। দোষী সাব্যস্ত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দোষী প্রামাণিত হলে তার কী ধরনের শাস্তি হতে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পাবলিক সার্ভিসের জন্য ডিসিপ্লিন আপিল রুল অনুযায়ী তার চাকরি থেকে ডিসমিসাল হতে পারে, রিমুভাল হতে পারে অথবা নিচের পদে নামিয়ে দেওয়া হতে পারে। গুরুদণ্ডও হতে পারে।

তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি অনিয়মের অভিযোগ থাকলে তা তদন্ত করা হবে কিনা জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, দুর্নীতি-অনিয়মের অভিযোগ থাকলে তদন্তে বেরিয়ে আসতে পারে। কমিটি সেটিও তদন্ত করতে পারবে। তাদের সামনে আসলে তারা সেটি বলতে পারবে। এটি প্রাথমিক তদন্ত, এটার ভিত্তিতে ডিপি কেইস হবে।