জিয়ার কবরে লাশ থাকলে ডিএনএ টেস্টে তার প্রমাণ করুন: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

6
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি, ওই কবরে জিয়ার লাশ নেই। জিয়ার কফিনের মধ্যে কি মানুষ ছিল, নাকি অন্যকিছু ছিল? প্রমাণ থাকলে ছবি দেখাতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

সোমবার (৩০ আগস্ট) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয় শোক দিবসের এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, জিয়ার কবরে লাশ নেই। থাকলে ডিএনএ টেস্ট করে তার প্রমাণ করুন। কেবল জিয়ার কবরই নয়, জাতীয় সংসদ এলাকায় লুই কানের নকশাবহির্ভূত যত কবর ও অবৈধ স্থাপনা রয়েছে, সব অপসারণ করতে হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, জাতির পিতাকে হত্যা করবে আর মুক্তিযুদ্ধের খেতাব থাকবে তা হতে পারে না। দালিলিক প্রমাণসাপেক্ষে জিয়াউর রহমানের খেতাবও বাতিল হবে।

এর আগে গত ২৬ আগস্ট মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছিলেন, সংসদ ভবনের আশপাশ থেকে জিয়ার কবরসহ সব স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য স্পিকার বরাবর আবেদন করা হয়েছে।

আবেদন পর্যালোচনা করে সংসদ ভবন এলাকার সব অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে সংসদ ভবনকে মূল নকশায় ফিরিয়ে আনার কাজ চলছে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, চন্দ্রিমা উদ্যানের মাজারে জিয়াউর রহমানের মরদেহ নেই। তাকে ব্রাশফায়ার করে হত্যার পর মৃতদেহ পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। জিয়াউর রহমানের মরদেহ থাকলে ডিএনএ টেস্ট করে প্রমাণ করার আহ্বানও জানান তিনি।